Beta

বসবাসযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকা ১৩৮তম

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:০৭

অনলাইন ডেস্ক

বসবাসযোগ্য শহরের তালিকায় দ্বিতীয়বারের মতো অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নকে পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা। এদিকে ১৪০টি শহরের এই তালিকায় ১৩৮তম অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। সবচেয়ে বাজে অবস্থায় রয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক (১৪০তম)। বিখ্যাত সাময়িকী ইকোনমিস্টের গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) বুধবার প্রকাশিত এ বছরের তালিকায় এসব তথ্য উঠে এসেছে।

মোটাদাগে পাঁচটি বিষয় সামনে রেখে এই র‍্যাংকিং প্রকাশ করে ইআইইউ। এ ক্ষেত্রে মোট পয়েন্টের মধ্যে স্থিতিশীলতা ও সংস্কৃতি ২৫ শতাংশ করে অর্ধেক পয়েন্ট পায়। এ ছাড়া স্বাস্থ্যসেবা ও অবকাঠামো খাত ২০ শতাংশ করে পয়েন্ট পায়। আর শিক্ষাব্যবস্থার মান বিবেচনায় বাকি ১০ শতাংশ হিসাব হয়। যেমন প্যারিসের অন্যসব বিষয় ঠিক থাকলেও চলমান বিক্ষোভের কারণে গত বছরের ১৯তম অবস্থান থেকে অবনতি হয়ে এবার ২৫তম অবস্থানে গিয়ে ঠেকেছে।

এসবের পাশাপাশি ভিয়েনার সংগীত ঐতিহ্য ও গোছানো ঐতিহাসিক স্থানগুলো পর্যটক আকর্ষণ করে। সাত বছর ধরে এই তালিকায় শীর্ষে থাকা মেলবোর্নকে গত বছর পেছনে ফেলে ভিয়েনা। তবে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ‘মার্কার’-এর তালিকায় বেশ কয়েক বছর ধরে শীর্ষে রয়েছে ভিয়েনা।

পঞ্চম থেকে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনি। শীর্ষ ১০ দেশের শহরের তালিকা নিচে দেওয়া হলো—

১. ভিয়েনা, অস্ট্রিয়া

২. মেলবোর্ন, অস্ট্রেলিয়া

৩. সিডনি, অস্ট্রেলিয়া

৪. ওসাকা, জাপান

৫. ক্যালগ্যারি, কানাডা

৬. ভ্যাঙ্কুভার, কানাডা

৭. টরন্টো, কানাডা এবং টোকিও, জাপান

৯. কোপেনহেগেন, ডেনমার্ক

১০. অ্যাডিলেড, অস্ট্রেলিয়া

অন্যদিকে তালিকায় তলানির দিকে থাকা ১০ শহরের নাম—

১৩১. কারাকাস, ভেনেজুয়েলা

১৩২. আলজিয়ার্স, আলজেরিয়া

১৩৩. দৌলা, ক্যামেরুন

১৩৪. হারারে, নাইজেরিয়া

১৩৫. পোর্ট মোর্সবি, পাপুয়া নিউগিনি

১৩৬. করাচি, পাকিস্তান

১৩৭. ত্রিপোলি, লিবিয়া

১৩৮. ঢাকা, বাংলাদেশ

১৩৯. লাগোস, নাইজেরিয়া

১৪০. দামেস্ক, সিরিয়া

Advertisement