Beta

ভারতীয় হিসেবে গর্বিত নই, কাশ্মীর ইস্যুতে অমর্ত্য সেন

২০ আগস্ট ২০১৯, ১২:২৭ | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৯, ১৩:২৩

অনলাইন ডেস্ক
নোবেলজয়ী ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ড. অমর্ত্য সেন। ছবি : সংগৃহীত

কাশ্মীর নিয়ে ভারত সরকারের সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করে নোবেলজয়ী ভারতীয় অর্থনীতিবিদ ড. অমর্ত্য সেন বলেছেন, ‘ভারতীয় হিসেবে আমি গর্বিত নই। কাশ্মীরে গণতন্ত্র ছাড়া অন্য কোনো উপায়ে সমাধান মিলবে বলে আমার মনে হয় না।’

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভিকে এক সাক্ষাৎকারে গতকাল সোমবার অমর্ত্য সেন বলেন, ‘সরকারের সিদ্ধান্তের মধ্যে বহুস্তরে ফাঁকি রয়েছে। গণতান্ত্রিক বিশ্বে ভারতের অনেক অর্জন থাকলেও এই সিদ্ধান্তের কারণে আমি গর্বিত নই। অপশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যে প্রথম গণতন্ত্রকে বরণ করা দেশ হলেও ভারত এই সিদ্ধান্তের কারণে চরম ভাবমূর্তি সংকটে পড়েছে।’

গত ৫ আগস্ট ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করে ভারত সরকার।

অমর্ত্য সেন সরকারের সমালোচনা করে জানান, অন্য রাজ্যের নাগরিকদের জম্মু ও কাশ্মীরে জমি কেনার সিদ্ধান্তটি কাশ্মীরিদের হাতে ছেড়ে দেওয়া দরকার ছিল। এটা তাঁদেরই বিষয়। এটা যেহেতু কাশ্মীরিদের জমি, যা করার তাঁদেরই করার কথা ছিল। এ সময় তিনি জম্মু ও কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতাদেরকে গ্রেপ্তার করে রাখারও সমালোচনা করেন।

অমর্ত্য সেন বলেন, ‘অতীতে যেসব নেতা সরকার গঠন করেছেন বা দেশটিকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, এমন নেতৃবৃন্দসহ হাজার হাজার নেতাকে যদি আপনি অবরুদ্ধ করে রাখেন, জেলে পুরে রাখেন, তাঁদের কণ্ঠস্বর না শোনেন, তাহলে সেখানে স্বচ্ছতা ও ন্যায়বিচার পাবেন বলে আমার মনে হয় না।’

কাশ্মীর নিয়ে সিদ্ধান্তের পর সেখানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ব্যাপকভাবে জোরদার করেছে ভারতীয় কেন্দ্রীয় সরকার। ড. সেন বলেন, ‘এটা ধ্রুপদী ঔপনিবেশিক যুক্তি। ব্রিটিশরা এভাবেই ২০০ বছর দেশ শাসন করেছে।’

Advertisement