Beta

মধ্যপ্রদেশ থেকে ‘জেএমবি সদস্য’ গ্রেপ্তার

১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৩:১৩

অনলাইন ডেস্ক

২০১৪ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানে বিস্ফোরণের ঘটনায় অভিযুক্ত জামা’আতুল মুজাহিদীনের (জেএমবি) এক জ্যেষ্ঠ সদস্যকে মধ্যপ্রদেশ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ)। জহিরুল শেখ নামের ওই অভিযুক্ত পশ্চিমবঙ্গের নাদিয়া জেলার বাসিন্দা।

জহিরুল শেখকে গতকাল মঙ্গলবার মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের আজাদনগর থেকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থাটি। বর্ধমানের শিমুলিয়া মাদ্রাসার গাড়িচালক ছিলেন জহিরুল। ওই মাদ্রাসায় জঙ্গি প্রশিক্ষণ দেওয়া হতো বলে ২০১৪ সালে জানিয়েছিল এনআইএ।

২০১৪ সালের ২ অক্টোবর বর্ধমানে খাগড়াগড়ের একটি বাড়িতে বিস্ফোরণে দুই জেএমবি সদস্য নিহত হয়। বিস্ফোরণের পর তদন্তের সময় জহিরুলের ন্যানো গাড়িটি জব্দ করেছিল এনআইএ। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে ইন্দোরের বিচারিক হাকিম আদালতে তোলা হলে রিমান্ড মঞ্জুর করে কলকাতার এনআইএর বিশেষ আদালতে নেওয়ার অনুমতি দেন ইন্দোর আদালত।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্ধমানের ওই বিস্ফোরণের ঘটনার পর এনআইএ জানায়, ভারতে বড় ধরনের ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা ছিল জেএমবির। এএনআই সে সময় জানিয়েছিল, জঙ্গি কর্মকাণ্ড পরিচালনাসহ বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যুদ্ধ বাধানোর উদ্দেশ্যে ভারত থেকে সদস্য সংগ্রহ করে তাদের অস্ত্রের প্রশিক্ষণ দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল জেএমবি। এরপর বিস্ফোরক ও হাতে তৈরি গ্রেনেডের বড় মজুদ উদ্ধার করে এনআইএ।

Advertisement