Beta

তিনি একজন পুরুষ, ১২ বছর ধরে শুধু শাড়ি পরেন!

১৯ জুলাই ২০১৯, ১৯:৩১

অনলাইন ডেস্ক

তিনি রূপান্তরকামী নন। তিনি একজন সাধারণ পুরুষ। নাম হিমাংশু বর্মা। তিনি ভারতের দিল্লিতে থাকেন। হিমাংশু একটা পোশাক খুব পছন্দ করেন যা তিনি গত ১২ বছর ধরে পরেন।

তিনি শাড়ি পরতে খুব ভালোবাসেন। এ কারণে তিনি অনেকের কাছে কৌতূহলের পাত্র। তবে হিমাংশু মনে করেন, শাড়ি কোনো মেয়েলি পোশাক নয় বরং পূর্ণমাত্রায় পুরুষদের পোশাক।

গত ১২ বছর ধরে শাড়ি পরছেন হিমাংশু। তিনি ভারতে শাড়ি ম্যান নামে পরিচিত।

শাড়ি পরার এই পথ মোটেও মসৃণ ছিল না হিমাংশুর। নানা বিদ্রুপ আর বিরুদ্ধমত সত্ত্বেও আপন করে নিয়েছেন শাড়িকেই। হিমাংশুর সংগ্রহে বর্তমানে প্রায় শতাধিক শাড়ি রয়েছে। কোথাও বেড়াতে গেলেই কিনে ফেলেন পছন্দসই শাড়ি।

বিভিন্ন কায়দায় শাড়ি পরতে জানেন হিমাংশু। সবচেয়ে বেশি পছন্দ গুজরাটি কায়দায় শাড়ি পরা। দৈনন্দিন কাজের জন্য পরতে ভালোবাসেন ‘ঠাকুরবাড়ি স্টাইল’ বা দক্ষিণী কেতা।

হিমাংশু মনে করেন, শাড়ি পরার কারণে পুরুষত্ব কখনো ছোট করা হয় না। আর যদি তাই হতো, তবে অতীতের কোনো ভারতীয় পুরুষ, পুরুষ ছিলেন না। কারণ, তখন শাড়িই ছিল অভিজাত পুরুষের পোশাক। বেনারসি, মসলিন ইত্যাদি শাড়িকেই ধুতির মতো করে পরতেন রাজবংশীয়রা।

হিমাংশুর এই শাড়ি পরার যাত্রা শুরু হয় ২০০৬ সালে। মায়ের থেকে নিয়ে প্রথম শাড়ি পরেছিলেন তিনি। এরপর শাড়ির প্রেমে পড়ে যান তিনি। শাড়ি নিয়ে অনেক পড়াশোনাও করেছেন। জেনেছেন ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের শাড়ির রকমফের। গবেষণা করে দেখিয়েছেন, আদি থেকে মধ্যযুগ অব্দি শাড়িকেই নানা কায়দায় অঙ্গে জড়িয়েছেন ভারতবাসী নারী ও পুরুষরা।

Advertisement