Beta

অঞ্জু ঘোষ ‘ভারতীয়’, প্রমাণ দিল বিজেপি!

০৬ জুন ২০১৯, ২০:৪২ | আপডেট: ০৬ জুন ২০১৯, ২০:৪৫

কলকাতা সংবাদদাতা
অঞ্জু ঘোষের জন্ম সনদ প্রকাশ করে বিজেপি। ছবি : সংগৃহীত

‘বেদের মেয়ে জোসনা’খ্যাত চিত্রনায়িকা অঞ্জু ঘোষ ভারতীয়। এমনই দাবি করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। আজ বৃহস্পতিবার তারই প্রমাণ হিসেবে জন্ম সনদ দেখাল বিজেপি! সেখানে বলা হয়েছে, কলকাতার একটি নার্সিং হোমে জন্ম হয়েছে অঞ্জু ঘোষের।

গতকাল বুধবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপির দপ্তরে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন বাংলাদেশের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ। যোগ দেওয়ার পরই অঞ্জু ঘোষের ভারতীয় নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়।

যদিও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘অঞ্জু ঘোষই বলবেন তাঁর নাগরিকত্ব প্রসঙ্গে।’ এরপর অঞ্জু ঘোষ বলেন, ‘আমার সবকিছুই ভারতে।’ তারপরও থামেনি বিতর্ক।

বিতর্ক থামাতে অঞ্জু ঘোষের  জন্ম সনদ প্রকাশ করেছে বিজেপি। ওই জন্ম সনদে দেখা যায় অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষের জন্ম কলকাতা শহরের একটি নার্সিংহোমে। তবে তা কলকাতা পুরসভায় নথিভুক্ত হয়েছে অনেক পরে। তা নথিভুক্ত হয় ২০০৩ সালের ডিসেম্বর মাসে।

কলকাতা পুরসভার জারি করা সেই সনদ অনুযায়ী অঞ্জু ঘোষের জন্ম তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৬৬। বাবার নাম সুধন্য ঘোষ ও মায়ের নাম বীণাপানি ঘোষ। মধ্য কলকাতার ইস্ট অ্যান্ড নার্সিং হোমে জন্ম হয়েছিল অঞ্জু ঘোষের। নথি অনুসারে অঞ্জু ঘোষের জন্ম সনদের নম্বর ০০৬৬০৮৫।

বিজেপি সূত্রে জানানো হয়, অঞ্জু ঘোষের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করেই তাঁকে বিজেপিতে যোগদান করানো হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরেই কলকাতার অভিজাত এলাকা সল্টলেকের বাসিন্দা অঞ্জু ঘোষ। এমনকি ভারতে সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনেও ভোট দিয়েছেন তিনি।    

১৯৯৬ সালে বাংলাদেশ ছাড়েন অঞ্জু ঘোষ। তখন থেকেই কলকাতায় বসবাস করছেন এই নায়িকা। কলকাতায় বেশ কিছু চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।

১৯৭২ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত একটানা বাংলাদেশের চট্টগ্রামে যাত্রা ও নাটকে অভিনয় করে এসেছেন অঞ্জু ঘোষ। সেই সময়ে বাংলাদেশের অন্যতম মঞ্চ-সফল জুটি ছিলেন অঞ্জু ঘোষ ও পঙ্কজ বৈদ্য। এরপর তিনি চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন। ১৯৮২ সালে চলচ্চিত্র নির্মাতা এফ কবির চৌধুরী চলচ্চিত্রে আনেন তাঁকে। অঞ্জুকে নিয়ে তৈরি করেন ‘সওদাগর’।

১৯৮৯ সালে বাংলাদেশের অন্যতম সফল নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে জুটি বেঁধে অঞ্জু ঘোষ সাড়া জাগান ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবি দিয়ে। যে চলচ্চিত্র গোটা বাংলাদেশে আলোড়ন ফেলে দেয়। যার ফলশ্রুতিতে বাণিজ্যিক লাভের আশায় পশ্চিমবঙ্গের টলিউডেও তৈরি হয় ‘বেদের মেয়ে জ্যোৎস্না’।

Advertisement