Beta

গাড়ির ইঞ্জিনে ঢুকিয়ে শরণার্থী পাচার

২৯ মে ২০১৯, ১৭:৩০

অনলাইন ডেস্ক

মরক্কো থেকে স্পেনে অবৈধভাবে যাওয়ার জন্য অভিনব ও বিপজ্জনক পন্থা বেছে নেন চার শরণার্থী যুবক। তাঁদের একজন নিজের জীবন বাজি রেখে গাড়ির ইঞ্জিনের ভেতর নিজেকে লুকিয়ে রাখেন।

কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। সীমান্ত পুলিশ তাঁকে ঠিকই খুঁজে বের করে।

সংবাদ মাধ্যম ইউরো নিউজ অনুসারে, গাড়িটি যখন স্পেনের সীমান্তে এসে পৌঁছায় তখন কর্তব্যরত সীমান্ত পুলিশ সদস্য গাড়িটিকে দেখেই সন্দেহ করেন এবং সেটিকে থামিয়ে তল্লাশি চালান। আর তখনই ঘটে অবাক করা সেই ঘটনা। গাড়িটির ভেতরের সিটে বসা ছিল তিন শরণার্থী এবং গাড়িটির ‘গেলোর বক্সে’ লুকানো ছিল ২০ বছর বয়সী আরেক যুবক।

সেই ঘটনার ভিডিও ইন্টারনেটে আপলোড করে সীমান্ত পুলিশ। আর তাতেই বিশ্বব্যাপী ভাইরাল হয় সেই ভিডিও। যাতে দেখা যায় জীবন বাজি রেখে তিনি  নিজেকে লুকিয়ে রেখেছেন গাড়ির ইঞ্জিনের ভেতর।

দেশটির সিভিল গার্ডের মুখপাত্র সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা গাড়িটির ভেতর থেকে চার শরণার্থীকে উদ্ধার করেছি। ভেতরে তারা খুবই খারাপভাবে লুকিয়ে ছিল। সেখানে তাঁদের শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। এতে যেকোনো সময় তাঁদের মৃত্যু হতে পারত।’

Advertisement