Beta

কংগ্রেস সভাপতি পদ ছাড়বেনই রাহুল!

২৮ মে ২০১৯, ২১:৫৪

কলকাতা সংবাদদাতা
ভারতীয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবির দায় কাঁধে নিয়ে কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন রাহুল গান্ধী।

এর আগে কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক থেকে শুরু করে একাধিক আলোচনায় নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন রাহুল। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার বিকেলে রাহুল গান্ধীর বাড়িতে কংগ্রেস নেতাদের বৈঠক হওয়া কথা। সূত্রের খবর, এই বৈঠকেও রাহুলকে কংগ্রেস নেতারা অনুরোধ করবেন যেন রাহুল গান্ধী তাঁর সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেন।

এদিকে মঙ্গলবার সকালেই রাহুল গান্ধীর কাছে যান তাঁর বোন তথা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা, রাজস্থানের কংগ্রেসের উপমুখ্যমন্ত্রী শচীন পাইলট। তবে হাজার বোঝানো সত্ত্বেও রাহুল তাঁর নিজের অবস্থানে অনড় থাকায় আগামী সপ্তাহে ফের বসতে চলেছে কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক।

এদিকে রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ করার সিদ্ধান্তের বিষয়ে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য তথা আসামের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ বলেন, রাহুল গান্ধী নিজের মত পরিবর্তন করবেন না। তিনি দাবি করেন, দলের কয়েকজন প্রবীণ নেতা যে আচরণ করেছেন- তা মেনে নিতে পারছেন না রাহুল গান্ধী। তাই তাঁর মনে হয়েছে, দলের সভাপতি থেকে কাজ করা ঠিক হবে না। রাহুল ভেবেছিলেন, ওই সব প্রবীণ নেতা নির্বাচনে কঠোর পরিশ্রম করবেন, কিন্তু তাঁদের কাজ তাঁকে খুশি করতে পারেনি।

কংগ্রেস সূত্র জানায়, রাহুল গান্ধী বলেছেন, তিনি কোনোভাবেই এই পরিস্থিতি থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন না। বরং আগের থেকে অনেক বেশি করে লড়বেন। তবে দলের দায়িত্বে না থাকলে তিনি মতাদর্শের লড়াই বেশি করে করতে পারবেন বলেই পদ ছাড়তে চাইছেন তিনি।

কংগ্রেসের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, একদিন আগেই কংগ্রেসের দুই বর্ষীয়ান নেতা আহমেদ প্যাটেল ও কে কে বেনু গোপালের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন রাহুল গান্ধী। সেখানে তিনি নিজের বিকল্প কাউকে খুঁজে বের করতে বলেন। তবে ওই বৈঠকে রাহুল রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের সঙ্গে দেখা করেননি।

সূত্রের খবর, নির্বাচনে গেহলট যেভাবে তাঁর ছেলের জন্য প্রচার করেছেন তাতে দলের ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করেন রাহুল। সেই কারণেই গেহলটের সঙ্গে দেখা করেননি তিনি। এই রকম নানা ঘটনাপ্রবাহের মধ্যে রাহুল গান্ধীর বাড়িতে যাচ্ছেন কংগ্রেস নেতারা।

অন্যদিকে কংগ্রেসের বর্তমান পরিস্থিতিতে গুজব ছড়ানো হচ্ছে বলে দাবি করে টুইটারে কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেন, সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে সবার কাছে কংগ্রেসের তরফে অনুরোধ করা হচ্ছে, সবাই যেন কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ বিষয় সম্পর্কে শ্রদ্ধাশীল হন। কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী কমিটির রুদ্ধদ্বার বৈঠকে কী আলোচনা হচ্ছে তা নিয়ে মতামত পোষণের নামে গুজব ছড়াবেন না।

Advertisement