Beta

ব্রাজিলের কারাগারে সহিংসতায় নিহত অন্তত ৪০

২৮ মে ২০১৯, ১৩:৪০

অনলাইন ডেস্ক
ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলের অ্যামাজোনাস রাজ্যের বেশ কয়েকটি কারাগার থেকে সোমবার অন্তত ৪০ কয়েদির লাশ উদ্ধার করা হয়। ছবিতে নিহত কয়েদিদের স্বজনদের আহাজারি। ছবি : সংগৃহীত

ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলের অ্যামাজোনাস রাজ্যের বেশ কয়েকটি কারাগার থেকে গতকাল সোমবার অন্তত ৪০ বন্দির লাশ  উদ্ধার করা হয়েছে। এর মাত্র একদিন আগেই নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে ১৫ কয়েদি নিহত হয়।

গতকাল সোমবার অ্যামাজোনাস রাজ্যের রাজধানী মানাউসের বেশ কয়েকটি কারাগারে থেকে বন্দিদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এদের সবাইকে শ্বাসরোধে হত্যার আলামত পাওয়া গেছে বলে জানায় কারাগার কর্তৃপক্ষ। নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে কারাগার পরিদর্শনে গিয়ে এসব মরদেহের খোঁজ পাওয়া যায় বলে জানান কর্মকর্তারা।

বিবিসি জানায়, মরদেহের বেশিরভাগই মানাউসের নিকটবর্তী আন্তোনিও ত্রিনিদাদ ইনস্টিটিউট কারাগার থেকে উদ্ধার করা হয়।  এ ছাড়া পুরাকুয়েকুয়ারা ও প্রভিশনাল ডিটেনশন সেন্টার কারাগার থেকেও মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

এ পরিস্থিতিকে ‘সংকটজনক’ বলছেন স্থানীয় গভর্নর উইলসন লিমা। গত রোববার কয়েদিদের দাঙ্গার ঘটনায় শুরু করা তদন্তের আওতায় গতকালকের ঘটনারও তদন্ত করা হবে বলে জানান তিনি।

ব্রাজিলভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গ্লোবোনিউজ ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, কারাগারে এ ধরনের সংঘর্ষ নিরসনে একটি টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। এর আগে রোববার ১৫ কয়েদি নিহতের ঘটনায় আরো অনেকেই আহত হন বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

রোববার একই অঞ্চলের আনিজিও জোবিম পেনিতেনসারি কমপ্লেক্স কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্য নির্ধারিত সময়ে শুরু হওয়া সহিংসতায় ১৫ কয়েদি নিহত হন। এর আগে ২০১৭ সালেও এ কারাগারে দাঙ্গার ঘটনায় ৫৬ জন নিহত হয়েছিলেন।

ব্রাজিলের কারাগারগুলোতে কয়েদির সংখ্যা ধারণক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি। সাত লাখ ১২ হাজার ৩০৫ জন বন্দি আছে দেশটির কারাগারে, যা সংখ্যায় বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম।

Advertisement