Beta

মাত্র তিন লাখ কোটি টাকায় বিবাহবিচ্ছেদ! কার জানেন?

০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:১৩

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটালেন অনলাইনে পণ্য বিক্রির জায়ান্ট অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস ও তাঁর স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি। ফাইল ছবি

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটালেন অনলাইনে পণ্য বিক্রির জায়ান্ট অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস ও তাঁর স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি। আর এই বিবাহবিচ্ছেদের ফলে জেফ বেজোসকে গুনতে হচ্ছে ৩৫ বিলিয়ন ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় দুই লাখ ৯৫ হাজার ৬১০ কোটি টাকা। আর এর ফলেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী নারীদের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে উঠে যাবেন ম্যাকেঞ্জি। অন্যদিকে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর অবস্থান থেকে সরে যাবেন বেজোস।

গত বৃহস্পতিবার বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই দম্পতি। সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা যায়।

বেজোস ও ম্যাকেঞ্জির এই ছাড়াছাড়ি এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল বিবাহবিচ্ছেদের ঘটনা।

এই বিবাহবিচ্ছেদের ফলে অ্যামাজনের চার শতাংশ শেয়ারের মালিকানা পাবেন ম্যাকেঞ্জি। অন্যদিকে অ্যামাজনের ১২ শতাংশ শেয়ারের মালিক থাকছেন জেফ বেজোস।

আর এতেই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী নারীদের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে উঠে যাবেন ম্যাকেঞ্জি।

অন্যদিকে বিশ্বে শীর্ষ ধনীর তকমা থেকে নাম সরে যাবে অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ বেজোসের।

গত জানুয়ারিতে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে সাবেক এক  টেলিভিশন উপস্থাপিকার সঙ্গে জেফ বেজোসের প্রেমের খবর ছড়িয়ে পড়ার পরই বিবাহবিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা যায়। এর আগে বিবাহবিচ্ছেদের কথাও জানিয়েছিলেন বেজোস।

এদিকে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণার পর এক টুইটবার্তায় ম্যাকেঞ্জি বলেন, ‘দুজনের সমর্থনের ফলেই জেফ ও আমার বিবাহবিচ্ছেদের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে বলে আমি অনেক কৃতজ্ঞ।’

জেফ বেজোস তাঁর টুইটবার্তায় বলেন, ‘আমি আমার পরিবার ও বন্ধুদের কাছে অনেক কৃতজ্ঞ, যারা আমাদের ভালোবাসা প্রদর্শন করেছেন এবং সাহস জুগিয়েছেন।’

এ ছাড়া ম্যাকেঞ্জির ব্যাপারে ওই টুইটবার্তায় বেজোস লেখেন, ‘সে অনেক বুদ্ধিমতি, আমি জানি, ভবিষ্যতেও আমি তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারব।’ 

১৯৯৩ সালে জেফ বেজোস ও ঔপন্যাসিক ম্যাকেঞ্জির বিয়ে হয়। এরপর ১৯৯৪ সালেই অ্যামাজনের যাত্রা শুরু করেন বেজোস। তাঁদের চার সন্তান রয়েছে।

Advertisement