Beta

হাতে অস্ত্র ও মাথায় হিজাব নিয়ে জানাজায় পাহারা

২৬ মার্চ ২০১৯, ১৯:৫৫

অনলাইন ডেস্ক
হিজাবে নিউজিল্যান্ডের পুলিশ সদস্য মিশেল ইভান্স। ছবি : সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে নিহত একজনের জানাজা পড়ানো হচ্ছিল। ওই স্থানের বাইরে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল পুলিশ। এরমধ্যে ছিলেন একজন নারী সদস্য। যার হাতে অস্ত্র ছিল, মাথায় ছিল হিজাব।

সংবাদ সংস্থা এপির আলোকচিত্রী ভিনসেন্ট ইউয়ুর তোলা ওই পুলিশ সদস্যের ছবিটি সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হচ্ছে। ২৪ বছর বয়সী ওই নারী পুলিশ সদস্য নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালবাসার নিদর্শন স্বরূপ মাথায় হিজাব ও বুকে ফুল নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন।

সে সময় তাঁর হাতে ছিল একটি সেমি-অটোমেটিক আগ্নেয়াস্ত্র অস্ত্র।

ফেসবুক টুইটারসহ সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ছবিটি শেয়ার করে অনেকেই নিউজিল্যান্ড পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

ওই পুলিশ সদস্যের নাম মিশেল ইভান্স। সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল জানিয়েছে, ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলায় আক্রান্তদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও শ্রদ্ধার জায়গা থেকে হিজাব পরেছেন এবং ফুল নিয়ে এসেছেন।

নিউজিল্যান্ড পুলিশের এক সদস্য ছবিটি টুইটারে শেয়ার করে বলেছেন, ‘আমি নিউজিল্যান্ড পুলিশের হয়ে কাজ করে গর্বিত। মিশেল যা করেছেন সত্যিই তা অসাধারণ।’

কে কেভানলু নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী ছবিটি পোস্ট করে নিউজিল্যান্ড পুলিশের প্রশংসা করেছেন।

গত ১৫ মার্চ অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারান্ট নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে নির্বিচারে গুলি করেন। এতে ৫০ জন নিহত হয়। নিউজিল্যান্ড পুলিশের হাতে আটক রয়েছেন ট্যারান্ট।

টেস্ট সিরিজ খেলার জন্য তখন নিউজিল্যান্ডে ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ওই দুই মসজিদের একটিতে জুমার নামাজ আদায়ের জন্য রওনা দেন তামিম-মুশফিকরা। কিন্তু মাঝপথে এক নারী তাঁদের সাবধান করে দেন। পরে ক্রিকেটাররা দ্রুত হোটেলে ফিরে যান।

Advertisement