Beta

সুইজারল্যান্ডে নিকাব খুলতে বাধ্য হবেন মুসলিম নারীরা!

১৯ মার্চ ২০১৯, ১৯:১০

অনলাইন ডেস্ক
সুইজ্যারল্যান্ড সরকার এমন এক আইন করতে যাচ্ছে যাতে নিকাবপরা মুসলিম নারীরা তাদের নিকাব খুলে চেহারা দেখাতে বাধ্য হবেন। প্রতীকী ছবি : সংগৃহীত

সুইজারল্যান্ডে নতুন একটি আইন হচ্ছে, যার ফলে সরকারি কর্তৃপক্ষের লোকজন বললে মুখঢাকা নিকাবধারী মুসলিম নারীরা তাদের নিকাব খুলে চেহারা দেখাতে বাধ্য থাকবেন।

এর আগে দেশব্যাপী বোরকা নিষিদ্ধের দাবি ওঠে সুইজারল্যান্ডে। এই দাবিতে দেশটির সংসদের নিয়মমতো একলাখ মানুষের স্বাক্ষরও জোগাড় করে কট্টরপন্থী জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকারীরা।

বোরকা নিষিদ্ধের ওই দাবি নাকচ করে দিয়ে সুইজারল্যান্ড সরকার নতুন এমন একটি আইন পাস করতে যাচ্ছে যাতে মুসলিম নারীরা নিকাব খুলে চেহারা দেখাতে বাধ্য হবেন। যুক্তরাজ্যের দ্য ডেইলি মেইল ও সুইজারল্যান্ডের স্থানীয় গণমাধ্যম দ্য লোকাল এ খবর দিয়েছে।

এরই মধ্যে দেশটির টিকিনো ও সেইন্ট গ্যাল্লেন জেলায় বোরকা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে সোলোদার্ন ও জুরিখসহ অধিকাংশ জায়গায় এখনো তা নিষিদ্ধ হয়নি।

সরকার বলছে, দেশব্যাপী বোরকা নিষিদ্ধ করা হলে যেসব শক্তিশালী জেলাগুলো এ ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত নেয়নি তাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হোক, এমনটি তারা করতে চায় না। আরব দেশগুলো থেকে আসা পর্যটকদের কারণে অনেক জেলা কর্তৃপক্ষ বোরকা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়নি।

অবশ্য আইনটি পাস হলে, কাস্টম ও ইমিগ্রেশনে কেউ নিকাব খুলতে অস্বীকৃতি জানালে জরিমানাও গুনতে হতে পারে। তবে আইনটি পাস হওয়ার আগে সুইজারল্যান্ডের পার্লামেন্টে সদস্যদের মধ্যে এ নিয়ে আলোচনা হবে।

Advertisement