Beta

পাকিস্তানের মাটি থেকে অন্য দেশে হামলা চালাতে দেওয়া হবে না

০৯ মার্চ ২০১৯, ১৭:৩০

অনলাইন ডেস্ক
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের মাটিকে ব্যবহার করে অন্য দেশে আর কোনো হামলা চালাতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এদিকে ভারতের অভিযোগ, সন্ত্রাস দমনে দৃঢ় পদক্ষেপ না নিয়ে শুধু ফাঁকা বুলি ছাড়ছে পাকিস্তান।

গতমাসে ভারতের কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় হামলার পর থেকেই বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদসহ জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলোর চাপের মুখে থাকা পাকিস্তান, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে জোর অভিযানে নেমে প্রায় ২০০ মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা করেছে। আটক করা হয়েছে নিষিদ্ধ ঘোষিত দলগুলোর শতাধিক সদস্যকে।

কয়েক বছরের মধ্যে নিষিদ্ধ সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে এটিই পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় পদক্ষেপ। গতকাল শুক্রবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দক্ষিণাঞ্চলে এক জনসভায় দেওয়া ভাষণে আবারো জঙ্গিমুক্ত নতুন পাকিস্তান গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, মোদি সরকার ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হলেও তার সরকার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে। মহাত্মা গান্ধীক স্মরণ করে তিনি আরো বলেন, মোদির মতো ধর্মান্ধদের সহিংসতার কারণে মহাত্মা গান্ধীকেও অনশন করতে হয়েছে।

এদিকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাবিশ কুমার আজ শনিবার বলেন, পাকিস্তান এখনও সব অস্বীকার করে যাচ্ছে। পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র দাবি করেছেন, পাকিস্তানে সন্ত্রাসী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদের অস্তিত্ব নেই।

রাবিশ কুমার আরো বলেন, ‘এটা দুঃখজনক যে পাকিস্তান এখন পর্যন্ত পুলওয়ামা হামলায় জইশ-ই-মোহাম্মদের দায় স্বীকারের বিষয়টিও মানছে না। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, এ হামলায় জইশ-ই-মোহাম্মদের দায় স্বীকার নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি রয়েছে। পাকিস্তান কি জইশ-ই-মোহাম্মদকে রক্ষা করছে?’

এর আগে বুধবার পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর দাবি করেন, জইশ-ই-মোহাম্মদ পাকিস্তানের অভ্যন্তর থেকে পুলওয়ামা হামলার দায় স্বীকার করেনি।

Advertisement