Beta

‘পৃথিবী ভারতের সাহসের প্রশংসা করছে, আপত্তি তুলছে শুধু বিরোধীরা’

০৬ মার্চ ২০১৯, ২২:৫৮

কলকাতা সংবাদদাতা
বুধবার কর্ণাটকে দলীয় এক জনসভায় বক্তব্য দেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ছবি : সংগৃহীত

আমি ভারতের মাটি থেকে দারিদ্র্য এবং সন্ত্রাসবাদকে দূর করতে চাইছি, আর আমাদের দেশের বিরোধীরা আমাকে হারাতে চাইছেন। আজ সারা পৃথিবী যেখানে ভারতের সাহসের প্রশংসা করছে, সেখানে আপত্তি তুলছে শুধু বিরোধীরা।

বুধবার ভারতের কর্ণাটকের এক সভা থেকে এভাবেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে আক্রমণ শাণালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মোদি এদিন বিরোধীদের মহাজোটকে মহাভেজাল বলে অভিহিত করে বলেন, ভারতের মানুষ চায় কেন্দ্রে এমন এক সরকার তৈরি হোক, যে সরকার অসহায় হবে না। যার মাথায় এমন কোনো মুখ্যমন্ত্রী বসে নেই যাকে রিমোট দিয়ে বাইরে থেকে কন্ট্রোল করতে হয়।

মূলত কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামীকে কটাক্ষ করে একথা বলেন মোদি।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, আজ সারা পৃথিবী যেখানে ভারতের সাহসের প্রশংসা করছে, সেখানে আপত্তি তুলছে শুধু বিরোধীরা। কিন্তু বিরোধীদের জানা উচিত, এই কৃতিত্ব ভারতের ১২৫ কোটি মানুষের।

বিরোধীদের কোনো সমালোচনা নিয়ে ভাবছেন না জানিয়ে মোদি বলেন, যার মাথায় ১২৫ কোটি মানুষের আশীর্বাদ রয়েছে সে ভয় পাবে কেন? ভারতের মানুষ আমাকে শক্তি দিয়েছেন। আমি দেশের কৃষকদের কথা ভাবছি, শ্রমিকদের কথা ভাবছি, দেশের কথা ভাবছি, জওয়ানদের কথা ভাবছি, সন্ত্রাসবাদকে নিশানা করছি। আর বিরোধীরা আমাকে সরানোর কথা ভাবছে।

মোদি নিজেকে ফের চৌকিদার বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, এই চৌকিদার সর্বদা ভারতবাসীর জন্য জেগে আছে। তিনি বিরোধীদের কটাক্ষ করে আরো বলেন, ৫৬ শব্দ (৫৬ ইঞ্চি বুকের ছাতি) শুনলেই নাকি ঘুম ছুটে যায় বিরোধীদের! মোদি যতক্ষণ রয়েছে, বন্ধ হয়ে যাবে চোরদের দোকান।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, একজন সৎভাবে কাজ করতে গেলে বাধা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার পূর্ণ সরকার। আর সেই সরকারের প্রধানমন্ত্রী তিনি। ফলে কোনো কাজ পূর্ণ না করে তিনি ছাড়বেন না।

Advertisement