জামাল খাসোগির লাশ বড় চুলায় পুড়িয়ে ফেলা হয়!

০৪ মার্চ ২০১৯, ২৩:২৮

ইউএনবি
খুন হওয়া সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি। ছবি : সংগৃহীত

খুন হওয়া সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগির লাশ সম্ভবত তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেট জেনারেলের বাসভবনের বড় চুলায় পুড়িয়ে ফেলা হয়। আল জাজিরার এক অনুসন্ধানে এ তথ্য উঠে এসেছে।

আল জাজিরার আরবি সংস্করণে রোববার রাতে সম্প্রচারিত এক তথ্যচিত্রে সৌদি ঘাতক দলের হাতে লেখক খাসোগি খুন হওয়ার নতুন বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে খাসোগিকে হত্যার পর তাঁর লাশের অংশ থাকা ব্যাগ কয়েকশ মিটার দূরে কনস্যুলেট জেনারেলের বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বাসার বাইরে থাকা চুল্লি জ্বলতে দেখেছে তুর্কি কর্তৃপক্ষ।

চুল্লিটি নির্মাণে কাজ করা এক শ্রমিক আল জাজিরাকে সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, সৌদি কনস্যুলেটের নির্দিষ্ট চাহিদা অনুযায়ী চুল্লিটি তৈরি করা হয়েছিল। এটি গভীর এবং এর এক হাজার ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা সহ্য করার সক্ষমতা রয়েছে- যা ধাতব পদার্থ গলিয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

সৌদি সাংবাদিকের লাশ পুড়িয়ে ফেলা ঢাকতে ঘটনার পর চুল্লিটিতে কয়েক ব্যাগ মাংসও রান্না করা হয়েছে বলে তুর্কি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এ ছাড়া তুর্কি তদন্তকারীরা সৌদি কনস্যুলেটর কার্যালয়ে রং সরানোর পর দেয়ালে খাসোগির রক্তের চিহ্ন পেয়েছে। ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাসোগিকে হত্যার পর খুনির দল এ রং লাগিয়েছিল।

নিরাপত্তা কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ ও খাসোগির কয়েকজন তুর্কি বন্ধুর সাক্ষাৎকার নিয়ে এ তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করা হয়েছে।