Beta

ডুবে যাওয়া কিশোরকে বাঁচাতে গিয়ে ৬ ডুবুরির প্রাণহানি

০৫ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৩৫

অনলাইন ডেস্ক
মালয়েশিয়ায় সেলান প্রদেশের সেপাং জেলায় পরিত্যাক্ত হ্রদে নিখোঁজ কিশোরকে উদ্ধারে গিয়ে প্রাণ হারান ছয় ডুবুরি। ছবি : সংগৃহীত

মালয়েশিয়ায় পরিত্যক্ত একটি হ্রদে নিখোঁজ এক কিশোরকে খুঁজতে গিয়ে প্রবল স্রোতে ডুবে প্রাণ হারিয়েছেন ছয় ডুবুরি। গত বুধবার রাতে সেলান প্রদেশের সেপাং জেলায় ওই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বুধবার ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর বন্ধুদের সঙ্গে মাছ ধরতে গিয়ে জেলার তামান পুত্রা পার্দানা অঞ্চলের ওই হ্রদে ডুবে যায়। পরে নিখোঁজ ওই কিশোরকে উদ্ধারে ডুবুরি দলটি সেখানে যায়। উদ্ধার তৎপরতা চালানোর সময় হঠাৎ তাঁরা ভয়াবহ এক পানির ঘূর্ণির মধ্যে পড়ে যান বলে কর্তৃপক্ষ জানায়।

গতকাল বৃহস্পতিবার আবারও নিখোঁজ ওই কিশোরের সন্ধানে অভিযান শুরু হবে বলে বিবিসির প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়।

ছয় ডুবুরির প্রাণহানি প্রসঙ্গে সেপাংয়ের পুলিশপ্রধান আবদুল আজিজ আলি বলেন, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ডুবুরিরা সব ধরনের প্রস্তুতিই নিয়েছিলেন। প্রয়োজনীয় পোশাক ও যন্ত্রপাতি নিয়েই তাঁরা একটি দড়ির সঙ্গে বাঁধা ছিলেন বলে জানান তিনি।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম বার্নামাকে আজিজ বলেন, একটি ভয়ংকর স্রোতের ঘূর্ণি ডুবুরি দলটিকে পেঁচিয়ে ধরলে তাঁরা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন।

দমকল ও উদ্ধারকারী বিভাগের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হামদান ওয়াহিদ সংবাদমাধ্যম নিউ স্ট্রেইট টাইমসকে জানান, ‘ওই অংশে একটি ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়। তীরে থাকা একদল লোক জানায়, তারা ছয় ডুবুরিকে স্রোতের পাক থেকে বেরিয়ে আসার জন্য চেষ্টা চালাতে দেখেন।’

প্রায় আধা ঘণ্টা পর অন্য ডুবুরিরা ডুবে যাওয়া দলটিকে উদ্ধারে সক্ষম হন। সে সময় তাঁদের সবাইকে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে অনেক চেষ্টা করেও তাঁদের কাউকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

‘এই প্রথম একসঙ্গে আমাদের ছয়জন ডুবুরির প্রাণহানির ঘটনা ঘটল, এটি আমাদের জন্য খুবই কষ্টের দিন,’ বলেন দমকল ও উদ্ধারকারী বিভাগের মহাপরিচালক।

Advertisement