Beta

বাংলাদেশ দখলের হুমকি বিজেপি নেতার

০১ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:৪৫

কলকাতা সংবাদদাতা
ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির প্রবীণ নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী। ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ সরকার যদি হিন্দুদের ওপর ‘অত্যাচার’ বন্ধ করতে না পারে, তাহলে ভারত সরকারের উচিত আক্রমণ করে দেশটি অধিগ্রহণ করা।

ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির প্রবীণ নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী গতকাল রোববার বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া পূর্ব ভারতের রাজ্য ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় সাংস্কৃতিক গৌরব সংস্থার একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ সরকারের উদ্দেশে বিজেপির প্রবীণ এই নেতা বলেন, সরকার যেন কট্টর ইসলামপন্থীদের সেখানে মন্দির গুঁড়িয়ে মসজিদ তৈরিতে এবং হিন্দুদের ধর্মান্তরিত করতে বাধা দেয়। আর যদি তা না করতে পারে, তাহলে ভারত সরকার যেন বাংলাদেশ আক্রমণ করে সেটিকে  অধিগ্রহণ করে।

শুধু বাংলাদেশ নয়, সুব্রামানিয়াম স্বামী ভারতের আরেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানেরও কঠোর সমালোচনা করেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে ‘চাপরাশি’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ইমরান খানকে প্রধানমন্ত্রী বলা হলেও আসলে তিনি পাকিস্তান  সরকারের একজন চাপরাশি। কারণ, পাকিস্তান দেশটা  সেখানকার সেনাবাহিনী এবং আইএসআই জঙ্গিরাই চালায়।’

পাকিস্তানকে তুলাধোনা করে সুব্রামানিয়াম স্বামী আরো বলেন, ‘বেলুচরা পাকিস্তানের সঙ্গে থাকতে চান না। সিন্ধিরা পাকিস্তানের অংশ হতে চান না। পাশতুনরা পাকিস্তানের সঙ্গে থাকতে চান না। তাহলে পাকিস্তানকে চার ভাগে ভাগ করে দেওয়া উচিত—বেলুচিস্তান, সিন্ধ, পাশতুন ও পশ্চিম পাঞ্জাব।

পাকিস্তানকে সব সময়ই অবহেলা করা উচিত। ভারতের উচিত নিজেদের সেনা প্রস্তুত করে একদিন পাকিস্তানে গিয়ে পুরো দেশটাকে চার টুকরো করে দিয়ে আসা—এমন মন্তব্যও করেন  সুব্রামানিয়াম স্বামী।

Advertisement