Beta

রোহিঙ্গা নিপীড়নে মিয়ানমার ও সু চিকে ভর্ৎসনা মাহাথিরের

২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:০৯

অনলাইন ডেস্ক
জাতিসংঘের ৭৩তম অধিবেশনে বক্তব্য দেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। ছবি : সংগৃহীত

রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো গণহত্যা, নিপীড়ন ও সহিংসতার জন্য মিয়ানমার সরকার ও দেশটির নেত্রী অং সাং সু চিকে তীব্র ভর্ৎসনা করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের ৭৩তম অধিবেশনে স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার বিশ্ব নেতাদের সামনে বক্তৃতা দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন মাহাথির।

মাহাথির বলেন, ‘আমি কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কথা বলার ব্যাপারে আগ্রহ পোষণ করি না। কিন্তু, তাই বলে কি সারা বিশ্ব চেয়ে চেয়ে গণহত্যা দেখবে আর মুখ বুজে থাকবে?’

‘দেশগুলো স্বাধীন। তাই বলে কী এ রকম যে তারা নিজেদের মানুষকে গণহারে হত্যা করার ব্যাপারেও স্বাধীন?’, প্রশ্ন করেন মালিয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী।

শান্তিতে নোবেলজয়ী একজন মানুষ কী করে রোহিঙ্গা নিপীড়নের ঘটনাকে অস্বীকার করে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মাহাথির।

‘মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে মুসলিমদের হত্যা করা হচ্ছে, ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে, লাখ লাখ শরণার্থীকে পালাতে বাধ্য করা হচ্ছে, গভীর সমুদ্রে ডোবানো হচ্ছে, খাবার ও পানির অভাবে অস্থায়ী কুটিরে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে, জরুরি স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে। এরপরও মিয়ানমার সরকার, যার ভেতরে একজন শান্তিতে নোবেল বিজয়ীও আছেন- তারা এসব ঘটনাকে অস্বীকার করছে,’ বলেন মাহাথির মোহাম্মদ। ৯৩ বছর বয়সী মাহাথির জাতিসংঘের ভাষণে বিশ্বব্যাপী রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক অশান্তি বৃদ্ধির সমালোচনা করেন। নতুন সহস্রাব্দ শুরুর মধ্য দিয়ে পৃথিবীর সার্বিক পরিস্থিতি আগের সময়ের চেয়ে আরো খারাপ অবস্থায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Advertisement