Beta

উড়ালসেতুর পর এবার পশ্চিমবঙ্গে ভাঙল সেতু

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:৩০

কলকাতা সংবাদদাতা
আজ শুক্রবার সকালে শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মানগাছ এলাকায় সেতুটি ভেঙে পড়ে। সেতুর মাঝামাঝি আটকে আছে একটি ট্রাক। ছবি : এনটিভি

মাত্র দুই দিন আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতার মাঝেরহাট উড়ালসেতু ভেঙে পড়েছিল। আর আজ ভেঙে পড়ল আরেকটি সেতু। আজ শুক্রবার সকালে শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মানগাছ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভাঙা সেতুর মাঝামাঝি এখন আটকে আছে একটি ট্রাক। তবে এ ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি। আটকেপড়া ট্রাকের চালক আহত হলে তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় চটহাট থেকে ফাঁসিদেওয়া এলাকার মধ্যে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম এই সেতু। কৃষিপ্রধান এ অঞ্চলের মানুষ যোগাযোগের জন্য এই সেতুটির ওপরেই নির্ভরশীল। সেতুটি ভেঙে পড়ার ফলে এখন এক কিলোমিটার পথ ঘুরে যাতায়াত করতে হবে স্থানীয়দের।

শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মানগাছ এলাকায় পিছলা নদীর ওপর ২০০২ সালে সেতুটি তৈরি হয়। সেতুটি প্রায় ৭০ মিটার লম্বা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরেই সেতুটি বেহাল। এ পর্যন্ত মেরামতের কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। তবে সেতু ভাঙার খবর পেয়েই সেখানে গিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব।

শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের সভাপতি তাপস সরকার বলেন, ‘দুর্ঘটনার খবর শুনেছি। হতাহতের কোনো খবর নেই। ঘটনাস্থলে প্রকৌশলী পাঠানো হচ্ছে। তাঁরা বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন।’

গত ৫ সেপ্টেম্বর কলকাতার মাঝেরহাট উড়ালসেতু ভেঙে পড়ে। এতে দুজন মারা যায় বলে সরকারিভাবে জানানো হয়।

এই উড়ালসেতু ভেঙে পড়ার জন্য অনেকেই মেট্রোরেলের সম্প্রসারণের কাজকে দায়ী করেছেন। এ ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘মেট্রোর কাজের জন্য জায়গাটিতে ভাইব্রেশন অনেক বেশি হতো। আমরা কোনো অ্যাঙ্গেলকে ছোট করে দেখছি না। কলকাতা পুলিশ মামলা করেছে। ঘটনার তদন্ত হবে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement