Beta

মূত্রনালি থেকে বের হলো ১০ সহস্রাধিক পাথর

৩১ আগস্ট ২০১৮, ২২:০১

কলকাতা সংবাদদাতা
কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। ছবি : সংগৃহীত

এক ব্যক্তির মূত্রনালি থেকে বের হলো ১০ হাজার ৩৫৬ টি পাথর। আজব এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।

জানা গেছে, এশিয়ার বুকে প্রথমবার এই মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে কোনো রোগীর মূত্রনালি থেকে এতো বেশি সংখ্যায় পাথর বের করলেন চিকিৎসকেরা। মজার বিষয় হলো, যে রোগীর মূত্রনালি থেকে এতগুলো পাথর বের করা হয়েছে তিনি কলকাতার একজন পুষ্টিবিশারদ। নাম রাজিব চৌধুরী। বয়স ৪০। কলকাতার অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব হাইজিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথে কর্মরত তিনি।

দেড় মাস ধরে কলকাতা সংলগ্ন দমদমের বাসিন্দা রাজিব চৌধুরীর চিকিৎসা চলছিল কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। সম্প্রতি শারীরিক সমস্যা বেড়ে যাওয়ার কারণে তাঁর আলট্রাসনোগ্রাফি করা হয়। আলট্রাসোনোগ্রাফি করেই চিকিৎসকেরা বুঝতে পারেন, রোগীর মূত্রনালিতে পাথর রয়েছে। এরপরেই গত সোমবার রাজিব চৌধুরীকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক মানস কুমার দত্তের নেতৃত্বে গত বুধবার সকালে রাজিব চৌধুরীর অস্ত্রোপচার করা হয়। মাইক্রো সার্জারি করে বের করা হয় সমস্ত পাথর। এরপরেই রীতিমতো চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যায় চিকিৎসকদের। কারণ, এতো বেশি সংখ্যায় পাথর রাজিব চৌধুরীর মূত্রনালিতে জমে ছিল, তা আন্দাজই করতে পারেননি চিকিৎসকেরা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রাজিব চৌধুরীর মূত্রনালি থেকে এতো বেশি সংখ্যায় পাথর বের হয়েছে, যার মধ্যে ১০ হাজার ৩৫৬টি পাথর গোনা সম্ভব হয়েছে।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, রাজিব চৌধুরীর শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল। তবে তাঁকে সুস্থতার জন্য আরো কয়েকদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।

চিকিৎসক মানস কুমার দত্ত জানিয়েছেন, মূত্রনালি থেকে এতো বেশি সংখ্যায় পাথর বের হওয়ার ঘটনা কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ইতিহাসে আগে কখনও ঘটেনি। তিনি জানান, রাজিব চৌধুরীর কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে মূত্রনালিতে পাথর হয়েছে। পাথর হলে সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে। আর সেই সংক্রমণ থেকেই পাথরের সংখ্যা বেড়ে যায়।

এই ঘটনায় কলকাতার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা জানান, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন করলে মূত্রনালিতে পাথর জমতে পারে। যেমন প্রতিদিনের খাওয়া দাওয়া অনিয়মিত হলে, অতিরিক্ত তেল, ঝাল, মশলাযুক্ত খাবার খেলে, জাঙ্ক ফুড বেশি খেলে, বেশি রাত জাগলে, অতিরিক্ত মানসিক চাপ থাকলে শরীরে লিপিড প্রোফাইল বেড়ে যায়। এর সঙ্গে কোলেস্টেরল, ট্রাইগ্লিসারাইডসহ অন্যান্য উপাদানের কারণে মূত্রনালিতে পাথর জমতে পারে। দ্রুত অস্ত্রোপচার করে পাথর বের না করলে জন্ডিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement