Beta

পাকিস্তানে ১২টি স্কুলে আগুন দিল দুর্বৃত্তরা

০৩ আগস্ট ২০১৮, ২২:০২

অনলাইন ডেস্ক
পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে ১২টি স্কুল পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানে ১২টি স্কুলে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। স্কুলে থাকা বইপত্র, ক্লাসের সরঞ্জাম, আলমারি বাইরে নিয়ে পুড়িয়ে দেয় তারা। স্কুলগুলোর মধ্যে ছয়টি ছিল মেয়েদের স্কুল।   

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দেশটির উত্তরাঞ্চলে গিলগিত-বালতিস্তান এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। ওই এলাকায় দাইমার নামের একটি জেলায় স্কুলগুলো পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা।

রয় আজমল নামে পুলিশের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যম ডনকে জানান, ওই এলাকার ১২টি স্কুল পুড়িয়ে দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে তদন্ত দল পাঠানো হয়েছে। 

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ বাশির বলেন, ‘ওই জেলার চিল্লাস এলাকায় শুক্রবার শেষ রাতের দিকে স্কুলগুলোতে হামলা চালানো হয়। স্কুল বন্ধ থাকায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।’ 

স্থানীয় লোকজন ও সাংবাদিকরা জানান, দুইটি স্কুলে বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পান তাঁরা।

দাইমার ইয়ুথ মুভমেন্ট নামে একটি সংগঠন চিল্লাসে জেলা প্রধানের কার্যালয়ের সামনে ওই হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে। এছাড়া স্থানীয় বাসিন্দারা দোষীদের আটক করার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে।  

দাইমারের পুলিশ কমিশনার সাইয়েদ আবদুল ওয়াহেদ শাহ বলেন, ‘এই ঘটনায় কাউকে এখনো পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা যায়নি। পুলিশ এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে।’

ওয়াহেদ শাহ বলেন, ‘বিস্ফোরক দিয়ে দুটি স্কুল উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আর স্কুল বাকিগুলোতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এই এলাকায় কোনো জঙ্গি সংগঠন বা তালেবানের তৎপরতা নেই। তবে উগ্রপন্থীরা নারী শিক্ষা নিয়ে বিরোধিতা করে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

Advertisement