Beta

ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরিতে আটকে আছেন ৫০০ পর্বতারোহী

৩০ জুলাই ২০১৮, ১৬:৪৩

দ্য গার্ডিয়ান

ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে ১৭ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া এতে পর্বতের একটি সক্রিয় আগ্নেয়গিরির ওপর আটকা পড়ছেন পাঁচ শতাধিক পর্বতারোহী ও তাঁদের গাইড।

গতকাল রোববার লম্বকে দেশটির ন্যাশনাল পার্ক রিনজানিতে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার এই ভূমিকম্প হয়।

আজ সোমবার সকাল থেকেই আটকে পড়া  আরোহীদের উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে উদ্ধারকারী বাহিনী।

১৮৪ জনের এই উদ্ধারকারী বাহিনীর মধ্যে সেনাবাহিনী, পুলিশ, চিকিৎসকসহ স্বেচ্ছাসেবী বাহিনীও রয়েছে। এ ছাড়া পার্কটির অনেক কর্মকর্তাও এই উদ্ধারকাজে অংশ নিয়েছেন।

পার্কের কর্মকর্তারা জানান, উদ্ধারকারীরা পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত আটকে পড়া মানুষকে নিরাপদ স্থানে থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

দেশটির স্থানীয় প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ভূমিকম্পের সময় পর্বতটির শিলার আঘাতে নিহত ১৭ জনের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। তবে আটকে পড়া ব্যক্তিরা অক্ষত রয়েছেন বলেই ধারণা করছেন তাঁরা।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানায়, ভূমিধসের ফলে পর্বতের কয়েকটি পথ বন্ধ হয়ে গেছে। আটকে পড়া আরোহীরা পর্বতের দুটি আলাদা জায়গায় রয়েছেন।

রিনজানি ন্যাশনাল পার্কের প্রধান সুদিয়ানো বলেন, এখনো ৫৬০ জন আটকে আছে। এর মধ্যে সিগারা আনাকান এলাকায় ৫০০ এবং বাতু সিপারে ৬০ জন পর্যটক আটকে রয়েছেন।

প্রশাসনিক সূত্রে জানা যায়, ভূমিকম্পটি লম্বকের উত্তরাঞ্চলে উৎপত্তি হয়। তবে এটি পশ্চিমের বালি উপদ্বীপেও অনুভূত হয়। এতে বেশ কিছু বাড়িঘর ভেঙে পড়লে প্রায় দেড়শ মানুষ আহত হন।

ন্যাশনাল পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, তিন হাজার ৭২৬ মিটার উচ্চতার রিনজানি পর্বতের প্রধান যে প্রবেশপথ, সেটা ভূমিধসে আটকে গিয়েছিল। তবে সেটিকে উন্মুক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া অন্যান্য পথে আটকে পড়া আরোহীদের জন্য হেলিকপ্টারে করে প্রয়োজনীয় সাহায্য পাঠানো হচ্ছে বলেও তাঁরা জানান।

দুর্যোগবিষয়ক কর্মকর্তা আগুং প্রামুজা বলেন, ‘৫০০ আরোহী আটকা পড়ে আছে। আমরা আশা করি, বিকেল ৫টার মধ্যে তাঁরা পর্বতের পাদদেশে পৌঁছে যাবেন। তাঁদের উদ্ধার করা যাবে।’

এদিকে, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো ওয়াইদোদো পুরো উদ্ধার প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করতে আজ সকালে লম্বকে গিয়ে পৌঁছেছেন। এ ছাড়া যাঁদের বাড়িঘরের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তাঁদেরও তিনি আর্থিক সহায়তা দেন। 

রিনজানি পর্বত দুঃসাহসিক আরোহীদের কাছে খুবই জনপ্রিয় একটি জায়গা। পর্বতটির চূড়ায় পৌঁছাতে কমপক্ষে দুদিন সময় লাগে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement