Beta

জাকির নায়েককে ভারতে পাঠাব না : মাহাথির

০৬ জুলাই ২০১৮, ১৬:২৩

এনডিটিভি

ইসলামবিষয়ক বক্তা জাকির নায়েককে (৫২) ভারতে ফেরত পাঠাবেন না বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।

সম্প্রতি ভারতের পক্ষ থেকে জাকির নায়েককে ফেরত পাঠাতে অনুরোধ জানানো হয়। পরে আজ শুক্রবার দেশটির প্রশাসনিক রাজধানী পুত্রজায়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে মাহাথির মোহাম্মদ এ কথা জানান।

২০১৬ সালে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ততা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জাতিগত হিংসা ছড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ তোলা হয়। ওই বছর মুসলিম অধ্যুষিত মালয়েশিয়ায় চলে যান তিনি। সেখানে তাঁকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে বলেও জানা যায়।

মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত তিনি কোনো সমস্যা সৃষ্টি না করছেন, আমরা তাঁকে ফেরত পাঠাব না। কেননা, তাঁকে এ দেশের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে।’

গতকাল দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, মালয়েশিয়া ও ভারতের মধ্যে একটি প্রত্যর্পণ (আসামি বা অপরাধি বিনিময়) চুক্তি বিদ্যমান রয়েছে। এরই সূত্রে, গত জানুয়ারিতে ভারতের নয়াদিল্লি থেকে এই অনুরোধ পাঠানো হয়। এ অনুরোধ পর্যালোচনার পর আজ এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

মালয়েশিয়ায় ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভেশ কুমার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ‘এখন জাকের নায়েককে ফেরত পাঠাতে আমাদের অনুরোধ মালয়েশিয়ার বিবেচনাধীন আছে। কুয়ালালামপুরে আমাদের হাইকমিশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলছে।’

জাকির নায়েক তাঁর বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। গণমাধ্যমগুলোর তার বিরুদ্ধে করা নানা প্রতিবেদনকে তিনি ‘পুরোপুরি ভিত্তিহীন ও মিথ্যা’ বলে দাবি করেন। তিনি জানান,  যত দিন পর্যন্ত নিরাপদ বোধ না করবেন, তত দিন ভারতে ফিরে যাওয়ার তাঁর কোনো পরিকল্পনা নেই।

২০০৮ সালে জাকির নায়েক বলেছিলেন, ২০০১ সালে অপহরণ করা বিমান, যেটা দিয়ে নিউইয়র্কের বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে হামলা চালানো হয়, তাতে জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার হাত নেই। ওই ঘটনায় প্রায় তিন হাজার মানুষ মারা যান।

এ ছাড়া ২০১৬ সালে ১ জুলাই ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় হামলা চালায় পাঁচ জঙ্গি। তারা জাকির নায়েকের অনুপ্রেরণায় এ হামলায় অংশ বলে এ সংবাদমাধ্যমে আসে। হামলার আগে পাঁচ জঙ্গির অন্যতম রোহান ইমতিয়াজ ও নিব্রাস ইসলাম নায়েকের কথা উদ্ধৃত করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করে। বিষয়টা জানাজানি হওয়ার পর জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে জঙ্গি তৎপরতায় ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement