Beta

ইরানে হিজাব খুলে কারাগারে নারী, পরে মুক্তি

৩০ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:১৯

বিবিসি

মাথার স্কার্ফ বা হিজাব খুলে লাঠিতে বেঁধে উচু স্থানে দাঁড়িয়ে আছেন এক নারী! ইরানের মতো দেশ যেখানে ১৯৭৯ সাল থেকেই ধর্মীয় অনুশাসন অনুযায়ী নারীদের ‘জোরপূর্বক’ স্কার্ফ পড়তে বাধ্য করা হয়, সেখানে এই দৃশ্য কল্পনাই করা যায় না। তবে গত ডিসেম্বরে এই অনুশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে এমনই কাজ করেছিলেন সেই নারী।

সেই নারী তখন ইরানের প্রতিবাদের প্রতিচ্ছবি হয়ে উঠেছিলেন। তাঁর ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে।

এই বিষয়ে প্রশাসনের কেউ প্রকাশ্যে কোনো কথা না বললেও এই জন্যে জেলেও যেতে হয়েছিলো এই নারীকে। তবে সম্প্রতি তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মানবাধিকার আইনজীবী নাসরিন সতুদেহ।

তবে এরই মধ্যে ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে একইভাবে প্রতিবাদ জানান আরো তিন নারী। তাদের ছবিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। এদের একজনকে সেই আগের জায়গাতেই প্রতিবাদ করতে দেখে যায়।

এই আন্দোলনকারীদের সম্পর্কে নাসরিন সতুদেহ জানান যে, সেই নারীকে জেল থেকে মুক্তি দেওয়ার দলিলপত্র দেখেছেন তিনি। তাঁর ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‘সেই মেয়েটিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।’ তিনি জানান, এ ঘটনার সর্বশেষ তথ্য জানতে প্রসিকিউটরের অফিসে গিয়ে তিনি জানতে পারেন তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

নাসরিন লেখেন, ‘আমি আশা করবো, তারা মেয়েটির বিরুদ্ধে সাজানো মামলা করবে না। তিনি এমন কিছু করেননি যে আইনি সহায়তা পাবেন না।’
 

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement