Beta

ব্রিটেনে প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রী

১৯ জানুয়ারি ২০১৮, ২১:৫৬

এনডিটিভি

ইংল্যান্ড সরকারের পরিবহন বিষয়ক জুনিয়র মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ‘ভারতীয় বংশোদ্ভূত’ নুস ঘানি (৪৫)। সহকর্মীদের কাছ থেকে শুভেচ্ছাও পেয়েছেন তিনি।

নতুন বছরে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মের করা কিছু রদবদলের অংশ হিসেবে নুস ঘানিকে পরিবহন মন্ত্রণালয়ের আন্ডার-সেক্রটারির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

দায়িত্ব পাওয়ার পর একটি বিবৃতিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ঘানি, ‘নতুন দায়িত্ব একইসঙ্গে রোমাঞ্চকর ও কঠিন। ওয়েল্ডেন এলাকায় এমপি নির্বাচনের সময় থেকে আমি পরিবহন বিষয়ে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালিয়েছি। মন্ত্রীর দায়িত্বের পাশাপাশি আমি ওয়েল্ডেন এলাকার পক্ষে কাজ করবো এবং  এলাকার সেবা করবো।’

পরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ক্রিস গ্রেইলিং বলেন, নুস ঘানির পদোন্নতির মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হচ্ছে টোরি পার্টি সবাইকে সুযোগ দেয়। তিনি বলেন, আমাদের দলই প্রথম একজন নারী মুসলিমকে মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিল। আমি তাঁকে শুভেচ্ছা জানাই। তাঁর পাশে বসার সুযোগ পেয়ে আমি গর্বিত।

২০১০ সালে বার্মিংহামে কনজারভেটিভ পার্টি থেকে সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আগে নুস ঘানি স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন যেমন, এইজ ইউকে, ব্রেকথ্রু ব্রেক ক্যানসার ও বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসে কাজ করেন। ২০১৫ সালে সংসদ নির্বাচনের জন্য রক্ষণশীল দলের প্রথম মুসলিম নারী প্রার্থী হন তিনি।

নুস ঘানির জন্ম বার্মিংহামে। তাঁর বাবা-মাকে পাকিস্তান-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর থেকে ব্রিটিনে পাড়ি দেন।

Advertisement