Beta

‘দুধের মতো’ সাদা কুমির, রহস্য কী?

২২ নভেম্বর ২০১৭, ১০:৪২ | আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০১৭, ১০:৫১

অনলাইন ডেস্ক
অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলে অ্যাডেলেইড নদীতে দেখা মিলেছে ‘দুধের মতো’ সাদা এক কুমির। ছবি : সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলে অ্যাডেলেইড নদীতে দেখা মিলেছে ‘দুধের মতো’ সাদা এক কুমিরের। স্থানীয় সময় রোববার দেশটির ডারউইন শহরের কাছে দেখা যায় ওই কুমিরের।

বিবিসির খবরে বলা হয়, স্থানীয়রা ওই কুমিরের নাম দিয়েছেন ‘পার্ল’। সেটি প্রায় ১০ ফুট লম্বা। শরীরের মেলানিনের পরিমাণ কম হওয়ার সেটির শরীরের রং এমন হয়ে থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রাণিবিদরা। কুমিরটির ‘হাইপোমেলানিজম’ নামের এক ধরনের বিরল শারীরিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয়দের ভাষ্যও মিলে যায় প্রাণিবিদদের সঙ্গে। তাঁরা জানান, ২০১৪ সালে দেখা মেলে এমনই এক সাদা চামড়ার হাইপোমেলানিজমে আক্রান্ত কুমিরের। সে সময় কুমিরটি এক জেলেকে হত্যা করে। পরে কুমিরটি আটক করা হয়। ওই কুমিরের সঙ্গে অ্যাডেলেইড নদীর পার্লের সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে।

বিবিসি জানায়, অস্ট্রেলিয়ার বেশিরভাগই কুমির ধূসর অথবা সবুজ। এতে তাদের পানিতে ছদ্মবেশ নিতে সাহায্য হয়।

এ বিষয়ে চার্লস ডারউইন বিশ্ববিদালয়ের গবেষক অ্যাডাম ব্রিটন জানান, জিনগত ত্রুটির কারণে কুমিরটির চামড়া সাদা হয়ে থাকতে পারে। এ ছাড়া ভ্রূণ অবস্থায় ডিমের ভেতরে থাকার সময় প্রতিকূল পরিবেশকেও কারণের তালিকায় রাখছেন তিনি।

ব্রিটন বলেন, ডিম ফুটে বের হওয়ার আগে সেটি হয়তো একটু বেশি উষ্ণ আবহাওয়ার মধ্যে ছিল। ফলে কোষ বিভাজনে ত্রুটি দেখা দেয় এবং জিনগত পরিবর্তন আসে।

তবে এই ধবধবে সাদা রং পার্লের জন্য মোটেও আশীর্বাদ নয়। কারণ সে শিকার ধরার সময় ছদ্মবেশ নিতে পারে না। ফলে খাবার জোগাড় করতে বেশ বেগ পেতে হয় সেটিকে।

 

আরো পড়ুন-

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement