Beta

কাতারের সঙ্গে সরাসরি আলাপ চায় না সৌদি : টিলারসন

২৩ অক্টোবর ২০১৭, ০৯:০১ | আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ০৯:২৩

অনলাইন ডেস্ক
মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন রোববার কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুলরহমান আল থানির সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন। ছবি : আলজাজিরা

কয়েক মাস ধরে চলা কূটনৈতিক সংকট সমাধানে উপসাগরীয় সহযোগিতা সংস্থার (জিসিসি) দেশ সৌদি আরব প্রতিবেশী কাতারের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা করতে রাজি নয় বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন।

সংকট সমাধানে কূটনৈতিক তৎপরতার অংশ হিসেবে স্থানীয় সময় রোববার সৌদি আরব হয়ে কাতার গিয়ে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে টিলারসন এ তথ্য জানিয়েছেন।

সন্ত্রাসে পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগে চলতি বছরের ৫ জুন কাতারের সঙ্গে সব ধরনের সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে জিসিসি ও আরব মিত্র সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), বাহরাইন ও মিসর। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় আরো কয়েকটি দেশ।

ওই চার আরব রাষ্ট্র কাতারের ওপর স্থল, নৌপথ ও আকাশপথ অবরোধও দেয়। এর পর থেকে সাড়ে চার মাসের বেশি সময় ধরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনসহ  দেশটির কিছু জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ও কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল-আহমাদ আল-জাবের আল-সাবাহ সংকট নিরসনে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। মাঝখানে আরব লিগের বৈঠকেও এ নিয়ে তুমুল আলোচনা, বিতর্ক হয়েছে। এমনকি কাতারের শীর্ষস্থানীয় এক কর্মকর্তা সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে দেখাও করেছেন। কিন্তু এত কিছুর পরও সংকটের কোনো জট এখনো খোলেনি।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, কাতারের রাজধানী দোহায় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুলরহমান আল থানির সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে টিলারসন বলেন, সংকট নিরসনে সৌদি আরবের আলোচনায় আসার বিষয়ে আশাবাদী নন তিনি।

সৌদির রাজধানী রিয়াদে বৈঠকের বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘(সৌদি) যুবরাজের সঙ্গে বৈঠকের সময় আমি তাঁকে বিনীতভাবে আলোচনায় বসতে বলেছিলাম। কিন্তু (তাঁর পক্ষ থেকে) সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো আলোচনায় বসতে বলে জোরালো কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।’

‘যারা আলোচনার জন্য প্রস্তুত নয়, আমরা তাদের ওপর সেটা চাপিয়ে দিতে চাই না।’

সংবাদ সম্মেলনে কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী চার আরব দেশের আচরণে হতাশা প্রকাশ করেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement