Beta

অশান্তির মধ্যে ভেনেজুয়েলায় সামরিক ঘাঁটিতে ‘সন্ত্রাসী হামলা’

০৭ আগস্ট ২০১৭, ১৪:৫৪

বিবিসি
ভেনেজুয়েলার ভ্যালেন্সিয়া শহরে সন্ত্রাসী হামলার পর একটি ট্যাঙ্ককে রাস্তায় টহল দিতে দেখা যায়। ছবি : এএফপি

সরকারবিরোধী আন্দোলনের মধ্যেই ভেনেজুয়েলার একটি সামরিক ঘাঁটিতে ‘সন্ত্রাসী হামলা’র ঘটনা ঘটেছে। হামলায় কমপক্ষে একজন নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় রোববার সকালে দেশটির ভ্যালেন্সিয়া শহরে ওই হামলা চালানো হয়।

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো জানিয়েছেন, কমপক্ষে ২০ জন রোববারের ওই হামলায় অংশ নেয়। এ সময় দুজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে সাতজনকে।

হামলার পর দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পলাতক ১০ ব্যক্তির খোঁজ চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন মাদুরো।

গ্রেপ্তার সাতজনের মধ্যে একজন সেনা কর্মকর্তা রয়েছেন। বাকিরা সবাই সেনাবাহিনীর উর্দিধারী সাধারণ জনগণ বলে জানিয়েছে ভেনেজুয়েলার সরকার।

এর আগে সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়। সেখানে উর্দিধারী কয়েকজন জানায়, তারা মাদুরোর ‘খুনি একনায়কতন্ত্রের’ বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে।

এ বিষয়ে ভেনেজুয়েলার রাষ্ট্রীয় একটি টেলিভিশন চ্যানেলে মাদুরো দেশটির সেনাবাহিনীর প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘এটি কোনো সামরিক অভ্যুত্থান নয়। সংবিধানের সংশোধনীর বিরুদ্ধে কতিপয় জনতা ও সেনাসদস্য এ হামলা চালিয়েছে। সেনাবাহিনীর তাৎক্ষণিক তৎপরতায় হামলা মূলেই উপড়ে ফেলা গেছে।’

এদিকে, হামলার পর ভ্যালেন্সিয়া শহরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কড়াকড়ি করা হয়েছে। শহরের রাস্তায় মোতায়েন করা হয়েছে সাঁজোয়া যান। এ ছাড়া একটি হেলিকপ্টারকে নজরদারি করতে দেখা গেছে। তবে দেশটির অন্যান্য স্থানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

ভেনেজুয়েলায় চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনে এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement