Beta

ব্রাজিলের কোকেন সম্রাট ‘হোয়াইট হেড’ গ্রেপ্তার

০২ জুলাই ২০১৭, ০৮:৫২

আলজাজিরা
লাতিন আমেরিকার অন্যতম মাদকসম্রাট লুইজ কার্লোস দা রোচাকে গ্রেপ্তারে পরিচালিত অভিযানের চিত্র। ছবি : এএফপি

‘হোয়াইট হেড’ বা সাদা মাথা হিসেবে পরিচিত ব্রাজিলের কোকেন সম্রাট লুইজ কার্লোস দা রোচাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সময় শনিবার ব্রাজিলের পুলিশ সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গত তিন দশক ব্রাজিল পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে আসছিলেন রোচা। গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি অস্ত্রোপচার করে নিজের চেহারাও পরিবর্তন করেছেন।

রোচাকে ব্রাজিলের পশ্চিমের শহর সরিসোর মাতো গ্রোসো থেকে গ্রেপ্তারের খবর জানায় পুলিশ। তবে কখন তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোচা গ্রেপ্তার এড়াতে তাঁর নাম পরিবর্তন করে ভিতর লুইজ দিমোরায়েজ রাখেন। শুধু নাম নয়, অস্ত্রোপচার করে নিজের চেহারাই বদলে ফেলেন তিনি। কিন্তু পুলিশ সব সময় তাঁর আন্তর্জাতিক মাদক ব্যবসার খোঁজখবর রেখেছিল।

পুলিশ আরো জানায়, বিভিন্ন অভিযানে আলাদা জায়গা থেকে তাঁর ‘ডান হাত’কেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ দুজনকে ধরতে পুলিশের ১৫০ চর ২৪টি অভিযান চালিয়েছে। জব্দ করা হয়েছে তাঁর (রোচার ডান হাত) এক কোটি ডলার সমমূল্যের বিলাসবহুল গাড়ি, ব্যক্তিগত বিমান, খামার এবং অনান্য সম্পদ।

এ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছিল ‘স্পেকট্রাম’। পর্তুগিজ ভাষার এ শব্দের অর্থ ‘ছায়ামূর্তি’, যে পালিয়ে বেড়ায়। তিনি (রোচা) ৩০ বছর ধরে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আসছিলেন।

পুলিশের বিবৃতিতে আরো জানানো হয়, রোচাকে ভারী অস্ত্রধারীরা সব সময় নিরাপত্তা দিত। তাঁর বিরাট কোকেন নেটওয়ার্ক রয়েছে। তিনি বলিভিয়া, পেরু ও কলম্বিয়ার জঙ্গল ব্যবহার করে মাদক এনে গোটা লাতিন আমেরিকায়, এমনকি যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপেও সরবরাহ করতেন। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে ব্রাজিলের সাও পাওলো এবং রাজধানী রিও ডি জেনিরোতেও আইনভঙ্গ করে মাদক চোরাচালানের অভিযোগ আছে।

পুলিশ ধারণা করছে, রোচার ১০ কোটি মার্কিন ডলার সমমূল্যের ব্যক্তিগত সম্পদ রয়েছে। স্পেকট্রাম অভিযানের দ্বিতীয় ধাপে এসব জব্দ করার পরিকল্পনা করছে পুলিশ।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement