Beta

সমলিঙ্গের বিয়ের পক্ষে তাইওয়ানের আদালত

২৪ মে ২০১৭, ২৩:২৩

অনলাইন ডেস্ক
উচ্চ আদালতের রায় ঘোষণার পর রংধনু পতাকা হাতে তাইওয়ানের রাজধানী তাইপেতে শোভাযাত্রা বের করে সমলিঙ্গের বিয়ের পক্ষের ব্যক্তিরা। ছবি : এএফপি

তাইওয়ানে সমলিঙ্গের বিয়ের পক্ষে রায় দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালতের বিচারকরা। এর মধ্য দিয়ে এশিয়ার প্রথম রাষ্ট্র হিসেবে এই ধরনের সম্পর্কের স্বীকৃতি দিল দেশটি।
স্থানীয় সময় বুধবার এই রায় দিয়ে তা বাস্তবায়নে সরকারকে দুই বছর সময় বেঁধে দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। 

বিবিসির খবরে বলা হয়, রায়ে সর্বোচ্চ আদালত সমলিঙ্গের ব্যক্তিদের বিয়ে নিষিদ্ধ করে বিদ্যমান যে আইন রয়েছে, তা সম-অধিকারের ধারণার সঙ্গে সাংঘর্ষিক ও অসাংবিধানিক বলে মন্তব্য করেন সর্বোচ্চ আদালত।

এর আগে বুধবার দুপুর থেকে সমকামী বিয়ের বিরোধিতাকারীরা তাইওয়ানের রাজধানী তাইপেতে সমবেত হতে শুরু করেন। পক্ষের লোকজনও ছিলেন রাজপথে।

আদালতে সমলিঙ্গের বিয়ের বৈধতা দেওয়ার পক্ষে আবেদনকারীদের একজন তাইওয়ানের আলোচিত সমলিঙ্গ অধিকারকর্মী চি চিয়া ওয়েই। তিনি মামলাটিকে সাংবিধানিক আদালতে তোলেন। ৫৯ বছর বয়সী চি ৩০ বছর ধরে এ নিয়ে আন্দোলন করছেন।

রায় প্রকাশের আগে সংবাদ সংস্থা এএফপিকে চি বলেছিলেন, ‘আমি শতভাগ আত্মবিশ্বাসী, রায় আমার পক্ষেই আসবে।’

রায় প্রকাশের পর চি বলেন, ‘আমি আশা করব, সরকার অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে আগামী দুই বছরের মধ্যে এটি বাস্তবায়ন করবে।’

তাইওয়ানের সাংবিধানিক আদালতের এই রায়ের প্রভাব এশিয়ার অন্যান্য দেশেও পড়তে পারে।  দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানসহ এশিয়ার অনেক দেশে  সমলিঙ্গের বিয়ের বিষয়টি নিয়ে জোর আলোচনা চলছে। 

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement