Beta

খাবারের ছবি তুলতে চাওয়ায় স্ত্রীকে ক্ষুধার্ত স্বামীর তালাক

০২ মে ২০১৭, ০৯:৩৭

অনলাইন ডেস্ক
প্রতীকী ছবিটি খালিজ টাইমসের।

জর্ডানের রাজধানী আম্মানের একটি বিলাসবহুল রেস্তোরাঁয় নৈশভোজে গিয়েছিলেন স্বামী-স্ত্রী। বেশ রোমান্টিক পরিবেশে খেতে বসলেন দুজন। কিন্তু এই ভোজের পরিণতি হলো বিচ্ছেদের মাধ্যমে। রেস্তোরাঁর ভেতরেই খাবার নিয়ে বিতণ্ডার ফলে স্ত্রীকে তালাক দিলেন স্বামী। একটি প্রতিবেদনে এমনই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস।

কী এমন হয়েছিল যার পরিণতি গড়াল তালাকে? এর জন্য স্বামী দায়ী করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রতি স্ত্রীর মাত্রাছাড়া আসক্তিকে।

রেস্তোরাঁর কর্মীর বরাত দিয়ে আরব বিশ্বের প্রভাবশালী পত্রিকাটি জানায়, ওই দম্পতি খাবারের অর্ডার দিয়েছিলেন। কিন্তু খাবার পরিবেশন করতে লেগে যায় আধা ঘণ্টারও বেশি সময়। এমনিতেই ক্ষুধার্ত ছিলেন স্বামী। খাবার আসতে দেরি হওয়ায় তাঁর ক্ষুধার মাত্রা আরো বেড়ে যায়।

খাবার সামনে পেয়ে যেই স্বামী উদরপূর্তি করতে যাবেন, তখনই স্ত্রী ধরল বায়না। আগে খাবারের ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করবেন তিনি। তার পরই শুরু হবে খাওয়া। উদ্দেশ্য বন্ধু-বান্ধবদের দেখিয়ে লাইক-কমেন্ট পাওয়া। স্ত্রীর এই আবদারে ক্ষুধার্ত স্বামীর মেজাজ চড়ল সপ্তমে। খাবার আগে না স্ত্রী আগে এসব ভাবনার তোয়াক্কা না করেই দিয়ে দিলেন তালাক।

এরপর খাবার না খেয়েই রেস্তোরাঁ থেকে বের হয়ে গেলেন স্বামী। যাওয়ার সময় খাবারের দামটিও দিয়ে যাননি তিনি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement