Beta

খেলার শুরুতে হার মানল বৃষ্টি, বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মানুষের ঢল

১০ অক্টোবর ২০১৯, ২০:০৮

হিমু আক্তার
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের বাইরে ভিড়। ভিড় ছিল স্টেডিয়ামের ভেতরেও। ছবি : এনটিভি

বিকেল থেকে আকাশে মেঘ। আর পড়ছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। তাতে কী? বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের বাইরে প্রচণ্ড ভিড়। খেলা সন্ধ্যায় অথচ বিকেলেই ভিড় জমে যায়। আহা, কতদিন পর এ দৃশ্য দেখা গেল! এশিয়া কাপ জয়ী কাতারের সঙ্গে বাংলাদেশের ম্যাচ। আর তাই এ ভিড়।

সন্ধ্যা ৭টায় খেলা শুরু হলো। জামাল ভূঁইয়াদের সমর্থন দিতে মাঠে প্রায় ২০ হাজার দর্শক!  শুধু কি তাই? খেলা শুরু হওয়ার ৩০ মিনিট পর জানা গেল স্টেডিয়ামের বাইরে অপেক্ষা করছে কয়েক হাজার মানুষ। টিকেটের চাই তাদের!

প্রতিপক্ষ বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ কাতার। স্বাভাবিকভাবে শক্তি-সামর্থ্য, পরিসংখ্যান সবকিছুতে এগিয়ে কাতার। তবে এরপরও আশা ছাড়ছেন না বাংলাদেশের ফুটবল প্রেমীরা। দেশকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়বে বলেই বৃষ্টি উপেক্ষা করে মাঠে হাজির ভক্তরা।

খালিদ সাইফুল্লাহ নামের একজন বলছেন, ‘ভুটানের বিপক্ষে গত দুই ম্যাচে বেশ ভালো খেলেছি আমরা। আশা করছি এই ম্যাচেও আমরা জিতব। আজ অনেকেই মাঠে অনেক মানুষ এসেছেন সমর্থন দিতে। আমরা বিশ্বাস করি, দর্শকের উপস্থিতিই পারে বাংলাদেশের ফুটবলকে এগিয়ে নিতে। আমরা আজ বৃষ্টি উপেক্ষা করে দেশের জন্য এসেছি সবার উচিত এভাবে মাঠে আসা।’

মোহাম্মদ আজিজ নামের এক দর্শক বলেন, ‘অনেক আশা নিয়ে মাঠে এসেছি। বিশেষ করে জামাল ভূঁইয়ার খেলা দেখতে। সে একজন অসাধারণ ফুটবলার। আমি আশা করছি সে গোল করবে এবং বাংলাদেশ জিতবে।’

এমন আশা করছেন মারিয়াও। পরিবার নিয়ে ম্যাচ দেখতে আসা এই তরুণী বলছেন, ‘এত বৃষ্টির মাথায় করে  মাঠে এসেছি। বাংলাদেশের জয় দেখতে চাই।’

একটা সময়ে বড় বিজ্ঞাপনের অংশ ছিল বাংলাদেশের ফুটবল। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মুদ্রার উল্টো পিঠও দেখছে লাল-সবুজের দল।

তবে এত সমস্যার মাঝে ধীরে ধীরে আলো হারিয়ে অন্ধকারে বাতি খোঁজার চেষ্টা করছে বাংলাদেশ। সম্প্রতি দেশের ফুটবল দেখছে আলোর মুখ। তাতে দর্শকরাও মাঠে আশার শুরু করেছে। অন্তত আজ বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডে কাতারের বিপক্ষে ম্যাচে দর্শকদের আগমন দেখে সেটাই মনে হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হওয়ার ঘন্টা খানেক আগ ধরেই দর্শকদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। তবে এই সংখ্যা আরো বাড়তো যদি বৃষ্টি বাধা হয়ে না দাঁড়াত। তবে ফুটবলের প্রতি নিখাঁদ ভালোবাসা এখনো টিকে আছে বলেই মানুষ আজ ছুটে এসেছে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে।

Advertisement