Beta

জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে মিয়াঁদাদের হুঁশিয়ারি!

২২ আগস্ট ২০১৯, ১৮:৩৮ | আপডেট: ২২ আগস্ট ২০১৯, ১৮:৪১

স্পোর্টস ডেস্ক

এই কিছুদিন আগে জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিল করে ভারতীয় কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্যসভায় প্রবল হট্টগোলের মধ্যে এই ঘোষণা দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তা নিয়ে সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে সামলোচনার ঝড় ওঠে। বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানি সাবেক তরকা ক্রিকেটার শাহীদ আফ্রিদি কড়া সমালোচনা করেছিলেন। এই তালিকায় নতুন নাম জাভেদ মিয়াঁদাদ।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমকে জাভেদ মিয়াঁদাদ বলেন, ‘আমাদের কাছে পরমাণু বোমা রয়েছে। সেটা আমরা এমনি এমনি রাখিনি। প্রয়োজনে ভারতকে জবাব দেব। সারা বিশ্বে নিয়ম রয়েছে যে কেউ আত্মরক্ষার জন্য জবাব দিতে পারে। এতে কোনো অপরাধ হয় না।’

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে পাকিস্তনি সাবেক অধিনায়ক বলেন, ‘ভারতীয়রা ভীতু। এখন পর্যন্ত তারা সাহসী কিছু করে দেখাতে পারেনি।’

এর আগে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে টুইটারে আফ্রিদি লিখেছিলেন, ‘কাশ্মীরিদের প্রাপ্য অধিকার পাওয়া উচিত। আমাদের সবার মতোই ওদেরও স্বাধীনতা প্রাপ্য। বিনা প্ররোচনায় এই আগ্রাসন এবং  অপরাধ কাশ্মীরে হয়ে চলেছে, যা মানবতাবিরোধী। এগুলো মনে রাখা দরকার। ট্রাম্পের এ বিষয়ে মধ্যস্থতা করা উচিত!’

রাষ্ট্রপতির নির্দেশ জারির মধ্য দিয়ে মোদির সরকার বাতিল করে দেয় ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা, যা জম্মু-কাশ্মীরকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যকে দুই টুকরোও করে দেওয়া হলো। রাজ্য থেকে লাদাখকে বের করে তৈরি করা হলো নতুন এক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, যার কোনো বিধানসভা থাকবে না। জম্মু-কাশ্মীরের পূর্ণাঙ্গ রাজ্যের মর্যাদাও কেড়ে নেওয়া হলো। এখন থেকে তার পরিচিতি হবে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে। তবে তার বিধানসভা থাকবে। দুই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পরিচালিত করবেন দুই লেফটেন্যান্ট গভর্নর।

Advertisement