Beta

আবার আলোচনায় হাথুরুসিংহে!

২৪ জুলাই ২০১৯, ১৭:৩৬ | আপডেট: ২৪ জুলাই ২০১৯, ১৯:২১

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রায় দুই বছর আগে বাংলাদেশ দলের কোচের পদ ছেড়ে শ্রীলঙ্কা দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। কিন্তু তাঁর কোচিংয়ে খুব একটা সাফল্য পাচ্ছে না শ্রীলঙ্কা দল। বিশেষ করে  বিশ্বকাপে বাজে পারফর্ম করে লঙ্কান দলটি। তাই শুধু সামলোচনাই নয়, হাথুরুসিংহে ও তাঁর নেতৃত্বাধীন পুরো কোচিং প্যানেলকে বরখাস্ত করার জন্য শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডকে নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো।

হাথুরুসিংহেকে নিয়ে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড কী সিদ্ধান্ত নেবে সেটা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে এরই মধ্যে আলোচনা শুরু হয়ে সাবেক লঙ্কান ক্রিকেটারকে আবার বাংলাদেশ দলের কোচের পদে দেখা যেতে পারে।

এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়েছে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকেও। আর বুধবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজ শেষে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে যদি বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কাজ করতে চান, তাঁকে প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করবে বিসিবি।’ 

এর আগে ২০১৪ সালের মেতে বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্ব পেয়েছিলেন হাথুরুসিংহে। তাঁর অধীনে দুই-আড়াই বছরে বাংলাদেশ দল দারুণ কিছু সাফল্য পেয়েছিল। ২০১৫ সালে বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল। এরপর ঘরের মাঠে ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলগুলোকে সিরিজ হারিয়েছে টাইগাররা। এরপর গত চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে উঠে মাশরাফির দল। পরে ২০‌১৭ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশ দলের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

এর আগে ২০০৫ সাল থেকে লঙ্কান ‘এ’ দলের কোচ ছিলেন হাথুরুসিংহে। ২০০৯ সালে তিনি জাতীয় দলের সহকারী কোচ মনোনীত হন। ২০১০ সালে জিম্বাবুয়ে সফর করে শ্রীলঙ্কা। ফাইনাল ম্যাচের আগে লেভেল থ্রি কোচিং করার জন্য অস্ট্রেলিয়ায় চলে যান তিনি। যাওয়ার সময় অবশ্য কোচ ট্রেভর বেলিস ও ম্যানেজার অরুণা থিনিকোনকে অবহিত করে যান। তবে বোর্ডপ্রধানকে অবহিত না করায় তখন চাকরি চলে যায় হাথুরুসিংহের। পরে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে আবার শ্রীলঙ্কার দলের দায়িত্ব নেন।

Advertisement