Beta

বিশ্বকাপের দল নিয়ে যা বললেন তামিম

১৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:৩৩

ক্রীড়া প্রতিবেদক

মঙ্গলবার আসন্ন বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ১৫ জনের স্কোয়াডে জায়গা হয়নি পেসার তাসকিন আহমেদের। যার কারণে ঘোষণার পর থেকে দল নিয়ে সমালোচনা চলছে বেশ জোরেসোরে।  বিশ্বকাপের সুযোগ না পেয়ে গতকাল সাংবাদিকদের সামনে কেঁদেই ফেলেছিলেন তাসকিন। মুহূর্তের মধ্যে সেটা ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সমালোচনার পক্ষে –বিপক্ষে যুক্তি দিতে থাকেন অনেকেই। তবে সমর্থকরা হা-হুতাশ করলেও স্কোয়াড নিয়ে সন্তুষ্ট দেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। তাঁর মতে, দল নিয়ে এসব সমালোচনা না করাই ভালো। বরং এসব সমালোচনা দলে প্রভাব ফেলতে পারে বলে মনে করেন ড্যাশিং এই ওপেনার।

বুধবার রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে এক অনুষ্ঠানে তামিম বলেন, ‘যে স্কোয়াডই দেওয়া হোক না কেন, সবারই পছন্দ-অপছন্দ থাকবে। অবশ্যই এখানে কিছু ক্রিকেটার আছে যারা ভালো পারফর্ম করেও সুযোগ পায়নি। আবার এমন কয়েকজন আছে যারা খুব ভালো করেছে এবং সুযোগও পেয়েছে। স্কোয়াড নিয়ে এখন অনেক আলোচনা-সমালোচনা হবে স্বাভাবিক। অমুক থাকলে ভালো হতো, তমুক থাকলে ভালো হতো এমন কথা শুনা যাবে। কিন্তু আমার মতে, এমন কথাগুলো না বলাই ভালো। তাহলে যারা আছে তাদের মন খারাপ হবে। এতে দলের ওপর প্রভাব পরতে পারে। আমি মনেকরি, দলটা বেশ ভালো, সবাই কমবেশি অভিজ্ঞ।’

বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নেবে বাংলাদেশ। ১৭-ই মে সিরিজ শেষ করে ইংল্যান্ডের বিমানে ওঠবে টাইগাররা। অর্থ্যাৎ বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য বেশ সময় পাচ্ছেন টাইগাররা। কিন্তু ওপেনার তামিম মনে করছেন আয়ারল্যান্ড বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য সঠিক নয়। কারণ আয়ারল্যান্ডের উইকেট ইংল্যান্ডের মতো নয়। তাই সিরিজটিকে মানসিক প্রস্তুতির মঞ্চ হিসেবে মানছেন তামিম।

তাঁর কথায়, ‘বিশ্বকাপের আগে যথেষ্ট প্রস্তুতির সময় পাওয়া যাবে। সেখানে মানসিক প্রস্তুতিটা বেশি জরুরি। কারণ আয়ারল্যান্ডের উইকেট ভিন্ন। তাই আয়ারল্যান্ডে নিজেদের দুর্বলতা যা আছে তার ৫% কমানো গেলেও তা আমাদের কাজে দিবে। ’

আসন্ন বিশ্বকাপে নিঃসন্দেহে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের পাশাপাশি ফেভারিট এশীয় দেশ ভারত। তামিমের কাছেও তাই। তবে ছোট দলগুলোও যে ভালো করার সামর্থ্য রাখে সেটাও মানছেন তিনি। তামিম বলেন, ‘অবশ্যই ভারত এবং ইংল্যান্ড ফেভারিট। এখানে অনেক দলই আছে তাদের আপনি সহজে ভাবতে পারবেন না। অস্ট্রেলিয়া আছে, পাকিস্তান আছে। এটা নির্ভর করে ওই টুর্নামেন্টে দল হিসেবে কে ফর্মে আছে। দেখি কী হয়, ক্রিকেটে যেকোনো কিছু কিছুই হতে পারে। এটা অনিশ্চয়তার খেলা। ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপে কেউ প্রত্যাশা করেনি শ্রীলঙ্কা জিতবে। আপনি জানবেন না, ক্রিকেট সবার জন্য কী চমক জমা করে রেখেছে।’

Advertisement