Beta

দেশের মাটিতে শেষ ওয়ানডে খেলে ফেললেন ডুমিনি-তাহির

১৭ মার্চ ২০১৯, ১৭:০৪

স্পোর্টস ডেস্ক

কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে শনিবার পঞ্চম ওয়ানডে ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা। এই ম্যাচ দিয়েই দেশের মাটিতে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলা হয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং অলরাউন্ডার জেপি ডুমিনি ও লেগস্পিনার ইমরান তাহিরের। সম্প্রতি দুজনেই ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন। বিশ্বকাপের আগে যেহেতু নিজেদের মাটিতে প্রোটিয়াদের আর ওয়ানডে ম্যাচ নেই, তাই এটিই হয়ে থাকল ৫০ ওভারের ক্রিকেটে দেশের মাটিতে ডুমিনি-তাহিরের বিদায়ী ম্যাচ।

বাঁহাতি মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান ডুমিনি দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১৯৪ ওয়ানডে খেলেছেন। চারটি শতক ও ২৭টি অর্ধশতকসহ ৩৭.৩৮ গড়ে রান করেছেন ৫৯৮০।  পাশাপাশি ডানহাতি অফস্পিনে নিয়েছেন ৬৮ উইকেট। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়ানডে ইতিহাসের নবম সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ডুমিনিকে ক্রিকেটপ্রেমীরা মনে রাখবে যেকোনো দুরূহ পরিস্থিতিতে ব্যাট করে দলকে জিতিয়ে আনার চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞার জন্য। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে থেকে অবসর নিলেও দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলার ইচ্ছে আছে তাঁর।

অন্যদিকে, প্রোটিয়াদের হয়ে ৯৮ ওয়ানডে ম্যাচে ১৬২ উইকেট নিয়েছেন ডানহাতি লেগস্পিনার ইমরান তাহির। ওয়ানডে ক্রিকেটে সমসাময়িক কালের অন্যতম সেরা স্পিনার বিবেচনা করা হয় তাহিরকে। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর তাহিরও বিদায় বলে দিবেন ওয়ানডেকে। তবে ডুমিনির মতো তিনিও টি-টোয়েন্টি খেলতে চান আরো কিছুদিন।

দেশের মাটিতে নিজের সবশেষ ওয়ানডে ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সুযোগ না পেলেও বোলিং করেছেন জেপি ডুমিনি। বল হাতে ৩ ওভারে ১৬ রান খরচ করে কোনো উইকেট পাননি। অন্যদিকে, দারুণ বোলিংয়ে ১০ ওভারে একটি মেডেন সহ ৩৩ রানে দুটি উইকেট নিয়েছেন ইমরান তাহির। তবে নিজভূমে দুজনের বিদায়ই হয়েছে দুর্দান্ত জয়ে। টানা পঞ্চম ম্যাচ জিতে শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

Advertisement