Beta

বর্ণবাদী মন্তব্য করে নিষিদ্ধ পাকিস্তানের অধিনায়ক

২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:১১ | আপডেট: ২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৫২

স্পোর্টস ডেস্ক

বর্ণবাদী মন্তব্যের জেরে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ডারবানে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কৃষ্ণাঙ্গ খেলোয়াড় এন্ডি ফেলুকওয়ায়োকে উদ্দেশ করে উইকেটের পেছন থেকে আপত্তিকর মন্তব্য করেন তিনি। আইসিসি ঘটনা তদন্ত করে আজ তাদের বর্ণবাদবিরোধী আইন অনুসারে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি দিল পাকিস্তানি অধিনায়ককে। 

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে চলমান ওয়ানডে সিরিজে প্রথম ম্যাচ জিতে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। কিন্তু দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে এন্ডি ফেলুকওয়ায়োর অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। প্রোটিয়াদের ম্যাচ জয়ের এই নায়ক ব্যাটিং করাকালীন উইকেটরক্ষক সরফরাজ বর্ণবাদী মন্তব্য করেন। ঘটনার সূত্রপাত ইনিংসের ৩৭তম ওভারে। কৃষ্ণাঙ্গ এই খেলোয়াড়ের চামড়ার রং ও তাঁর মাকে নিয়ে উর্দুতে অগ্রহণযোগ্য কিছু কথা বলেন পাকিস্তান অধিনায়ক। কিন্তু স্টাম্প মাইক্রোফোনের বদৌলতে সেই কথাগুলো সবার কানে চলে আসে। এরপরই তুমুল সমালোচনা শুরু হয় সব মহলে।

ঘটনার পরপরই টুইটারে ক্ষমা চান সরফরাজ আহমেদ। ম্যাচের দুরবস্থার হতাশা থেকেই এমন কথাগুলো বলেছিলেন, নির্দিষ্ট কাউকে আঘাত করার উদ্দেশ্যে নয়, জানান তিনি। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডও (পিসিবি) আনুষ্ঠানিক এক বিবৃতির মাধ্যমে ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে। কিন্তু আইসিসি তাদের আইন মেনে প্রাপ্য শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত বহাল রাখে। তদন্ত করে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় আজ শাস্তিমূলক এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলো সরফরাজকে। নিষেধাজ্ঞার ফলে সিরিজের আগামী দুই ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে পারবেন না তিনি। পাশাপাশি ফেব্রুয়ারিতে শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুটো ম্যাচেও মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাঁকে।

Advertisement