পাকিস্তানকে সহজে হারিয়ে ফাইনালে ভারত

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৫৭

লড়াইটা দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তানের। সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে এই দুই দলের লড়াইটা বেশ ভালোই হবে, এমনটা হয়তো অনেকেই ভেবেছিল। না, তা মোটেও হয়নি। পাকিস্তানকে সহজেই ৩-১ গোলে হারিয়ে আসরে দ্বিতীয় দল হিসেবে ফাইনালে ওঠে ভারত।

আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে পূর্ণ প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে ভারত। তাই সাফল্যও পায় সাফে সবচেয়ে বেশিবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া দলটি।

ম্যাচের ৪৮ মিনিটে ভারতকে প্রথমে গোলের সূচনা এনে দেন মানভির সিং। আশিক কুরুনিয়ানের গোলমুখে ক্রসে স্ট্রাইকার মানভির পা ছোঁয়ালেই বল ঠিকানা খুঁজে পায় পাকিস্তানের জালে (১-০)।

৬৯ মিনিটে ভারতের ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোলটি করেন সেই মানভিরই। সতীর্থের বাড়ানো বল ধরে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান তিনি (২-০)।

৮৪ মিনিটে বদলি স্ট্রাইকার সুমিন পাসি ভারতের পক্ষে তৃতীয় গোল করেন। আর শেষ বাঁশি বাজার দুই মিনিট আগে পাকিস্তানের পক্ষে একটি গোল করে ব্যবধান কিছুটা কমান হাসান নাভেদ বশির ।

এ নিয়ে আসরে ১১ বার ফাইনালে উঠেছে ফেভারিট ভারত। তার মধ্যে সাতবারই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। ১৯৯৩ সালে প্রথম সাফ চ্যাম্পিয়শিপে শিরোপা জিতে ভারত। এরপর ১৯৯৭, ১৯৯৯, ২০০৫, ২০০৯, ২০১১, ২০১৫ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা।

এর আগে প্রথম সেমিফাইনালে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে উঠে মালদ্বীপ। মালদ্বীপ এ পর্যন্ত পাঁচবার ফাইনাল খেলার সুযোগ পেয়েছে। তার মধ্যে ১৯৯৭, ২০০৩ এবং ২০০৯ সালে মালদ্বীপ রানার্সআপ হলেও ২০০৮ সালে তারা ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

তবে নেপাল এবারও সেমিতে উঠে হতাশ হয়ে ফিরেছে। বাংলাদেশের মতো শক্ত প্রতিপক্ষকে হারিয়ে শেষ চারে উঠলেও তারা শেষ পর্যন্ত পারেনি।

আগামী শনিবার ফাইনালে ভারত ও মালদ্বীপ মুখোমুখি হবে।