Beta

সারা দেশে বঙ্গবন্ধু অনূর্ধ্ব-১৭ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু

০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৫৬

নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে শনিবার বিকেলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের (অনূর্ধ্ব-১৭) উদ্বোধন করা হয়। খেলার আগে খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচিত হন অতিথিরা। ছবি : এনটিভি

প্রতিভাবান ফুটবলার খুঁজে বের করার লক্ষ্যে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যাগে সারা দেশে শুরু হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭)।

শনিবার বিকেলে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে জাকজমকপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শুরু হলো আন্তঃইউনিয়ন পর্যায়ের খেলা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতি থেকে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার।

নেত্রকোনা জেলা প্রশাসন ও বারহাট্টা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি জাহিদ আহসান রাসেল, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, যুগ্ম সচিব আনিস মাহমুদ, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মোহাম্মদ মাসুদ করিম এবং পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) নিবাস চন্দ্র মাঝি এবং ঢাকাস্থ ব্রাজিল দূতাবাসের কাউন্সিলর মিল্টন ডি এফ. কউটিনহ ফিলহ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান।

এ ছাড়া সাবেক তারকা ফুটবলার শেখ মোহাম্মদ আসলাম, হাসানুজ্জামান বাবলু, ইলিয়াস হোসেন, খন্দকার রকিবুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক নূর খান মিঠু, জাতীয় ফুটবলার অমিত খান সুভ্র, নেত্রকোনা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক সাইদুর রহমান, নেত্রকোনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাইফ খান বিপ্লবসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনকালে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, এই ফুটবল টুর্নামেন্টের মাধ্যমে বাংলাদেশের যুব সমাজ জেগে উঠবে। ক্রীড়া ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন অচেনা অজানা কোনো দেশ নয়। ক্রীড়ার মাধ্যমেই বাংলাদেশকে এখন বিশ্বে তুলে ধরেছি।

বীরেন শিকদার বলেন, ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে সারা দেশব্যাপী আয়োজন করা হয়েছে এই ফুটবল টুর্নামেন্টের। এর মধ্যে ১২ কোটি টাকা মাঠপর্যায়ে ব্যয় করা হচ্ছে। উপজেলাপর্যায়ে প্রতি ম্যাচে অংশগ্রহণের জন্য যাতায়াত ও খাবার বাবদ প্রতিটি দলকে দেওয়া হচ্ছে ১০ হাজার টাকা। জেলাপর্যায়ে অংশগ্রহণকারী দল পাবে ১২ হাজার টাকা করে। আর বিভাগীয়পর্যায়ে অংশ নেওয়া দলসমূহ ২৪ হাজার টাকা করে বাজেট রাখা হয়েছে। এই আসরের সেরা ৪০ জন ফুটবলারকে নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হবে।

এই টুর্নামেন্ট নেত্রকোনায় উদ্বোধন হলেও দেশের ৬৪ জেলার প্রতিটি উপজেলায় একযোগে চলবে। আজ উদ্বোধনী খেলায় অংশ নেয় বারহাট্টা উপজেলার সদর ইউনিয়ন ও বাউসী ইউনিয়ন। সদর ইউনিয়ন ৮-১ গোলে বাউশী ইউনিয়ন একাদশকে পরাজিত করে টুর্নামেন্টের শুভ সূচনা করে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement