Beta

কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত রিয়াল কোচ!

০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:০৫

স্পোর্টস ডেস্ক

জিনেদিন জিদান তাঁর কূটকৌশলের জন্য পরিচিত ছিলেন। তবে বার্নাব্যুতে তাঁরই উত্তরসূরি এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি নতুনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত। তিনবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ বিজয়ী এই ফরাসি কোচ চলে যাওয়ায় অনেক কোচই সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করতে চাননি। স্বাভাবিকভাবেই, হুলেন লোপেতেগুইয়ের জন্য পথ চলা খুব মসৃণ হবে না। তাই নিজের মতো করেই দল চালাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

জিদান যখন দায়িত্বে ছিলেন, তখন কয়েকজন তারকা খেলোয়াড় দলে ছিলেন। ফ্রান্স ও রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে জিদানের ইতিহাস খেলোয়াড়দের সুন্দর সময় কাটানোর কথা বলে। তবে লোপেতেগুই অন্য পথে হাঁটবেন। এই স্প্যানিশ কোচ তারকা খেলোয়াড় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে ছাড়াই স্বচ্ছন্দভাবে দল চালাতে প্রস্তুত। প্রাথমিকভাবে তিনি যা বলছেন, তাই করা হচ্ছে।

লা লিগা বিজয়ী বার্সেলোনা থেকে ১৭ পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করে লোপেতেগুই দলকে অন্যভাবে পরিচালনার কথা ভাবছেন। রোনালদোর পরিবর্তে সাত নম্বর জার্সিতে আসা মারিয়ানো দিয়াজকে নিয়ে রোনালদোর অর্ধেক গোলও পাবেন বলে আশা করেন না তিনি। তবে সবাইকে এগিয়ে নিতে এটিই নতুন কোচকে সাহায্য করতে পারে। লিগের দুটি ম্যাচ খেলার পরই কোচ তাঁর মতো করে সিদ্ধান্ত নেওয়া শুরু করেছেন এবং খেলোয়াড়দের জোর করে বসিয়ে দিচ্ছেন। কোচের প্রথম খড়গ নেমে আসে ব্রাজিলিয়ান তারকা মার্সেলোর ওপর। জিরোনার বিপক্ষে ৪-১ গোলে জেতা সেই ম্যাচে হঠাৎ করেই এক ঘণ্টা পর মার্সেলোর পরিবর্তে নামানো হয় রাফায়েল ভারানেকে। এই ব্যাপারে মার্সেলো বলেন, ‘বদলির ব্যাপারে অবাক হয়েছি, তবে কোচের সিদ্ধান্তকে আমি সম্মান করি। আমি খেলতে চেয়েছিলাম, কারণ আমার মনে হয়েছে আমি শতভাগ দিতে পারতাম।’

মার্সেলোর একটি ভুলের কারণে জিরোনা একটি গোল দেওয়ার পরই তাঁকে উঠিয়ে দেন কোচ। মার্সেলোর বদলি খেলোয়াড় নামানোর ব্যাপারে এই সাবেক স্প্যানিশ কোচ বলেন, ‘আমরা সেই দিকটি আরো শক্তিশালি করতে চেয়েছিলাম।’ তাঁর এসব কর্মকাণ্ড একটি বার্তাই দলকে দিতে চেয়েছে, তা হলো, ‘মান কমতে দেওয়া যাবে না।’ এদিকে নতুন যোগদান করা থিবাউত কোর্তেসকে দলে খেলাতেও আগ্রহী লুপেতেগুই। তবে নাভাস নতুন কোচকে ভালো উপহার দিয়েছেন বলা চলে। গত বৃহস্পতিবার জিতেছেন ২০১৭-১৮ সেশনের উয়েফা সেরা গোলকিপার পুরস্কার। তাই অভিষেকের জন্য কোর্তেসকে অপেক্ষা করতে হবে আরো কিছুদিন।

ভারানে, দানি সেবালোস এর মতো খেলোয়াড়দের তো সুযোগ দিচ্ছেনই, উপরন্তু সুযোগ পাবে নতুনরাও। ১৮ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসাস জুনিয়রের জিরোনার বিপক্ষে অভিষেক হওয়ার কথা থাকলেও সাইড বেঞ্চেই কাটাতে হয়েছে পুরো সময়। তবে তিনি শিগগিরই মাঠে নামবেন। অবশ্য এগুলো লোপেতেগুইয়ের আমলের কেবল শুরু। একটি ম্যাচ হারলেই উল্টে যেতে পারে পাশার দান। সামনে বিরতির পর লুকা মদ্রিচও আসছেন দলে। তাই লোপেতেগুইকে যে অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে এটি নিশ্চিত।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement