Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

নবীজির (সা.) নাম সংক্ষেপে লেখা কি জায়েজ?

২৫ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৪৬

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২১৯৩তম পর্বে নবীজির (সা.) নাম সংক্ষেপে নাকি সম্পূর্ণ লিখতে হবে, সে সম্পর্কে ঢাকা থেকে চিঠিতে জানতে চেয়েছেন একজন দর্শক। অনুলিখন করেছেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : নবীর (সা.) নাম সংক্ষেপে (সা.) নাকি পুরা নাম লিখতে হবে?

উত্তর : বাংলা ভাষায় আমাদের অনেক রীতি প্রচলিত আছে। কেউ (দ.) বা (চ.) বা কেউ (স.) বা (সা.) লেখেন। কেউ কেউ ‘সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ পুরাটাই লেখেন।

এ ক্ষেত্রে ওলামায়ে কেরামরা যেই মানহাজ বা রীতি বা নিয়মের অনুসরণ করেছেন সেটি হলো ‘সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ পুরোটাই লেখা।  কারণ পুরাটা লিখলে দরুদের যেই সওয়াব রয়েছে, সেই সওয়াবটুকু পেয়ে যাবেন।

সমস্ত হাদিসের কিতাবের এক জায়গায়ও নবীজির (সা.) নাম সংক্ষেপে লেখা নেই। বরং ‘সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ পরিপূর্ণরূপেই ছিল এবং সেটি এখনো পরিপূর্ণভাবেই লেখা আছে। কারণ যেন পড়তে গিয়ে এই দরুদ পড়ার ফজিলতটুকু আপনি পান।

তাই আহলে হাদিসগণ একে ফজিলতের বিষয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন এবং পরিপূর্ণ লেখাটাই হচ্ছে সুন্নাহ ও সালফে সালেহিনের মানহাজ।

লেখা বড় হয়ে যাবে বা বই বৃদ্ধি পেয়ে যাবে, এ কারণে অনেকে সংক্ষিপ্ত করে থাকেন। এই সংক্ষিপ্ত করাটা জায়েজ কি না, এ বিষয়ে একজন আলেম বলেছেন, ‘হাদিসের মধ্যে আল্লাহর রাসুল (সা.) তো তাকে কৃপণ বলেছেন।’  

সুতরাং, নবীর নাম সংক্ষেপ করবে যে, আসলে সেই কৃপণ, সংক্ষেপ না করাটাই উত্তম এবং সুন্নত।    

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement