Beta

বৈশাখে পছন্দের পাঞ্জাবি

১২ এপ্রিল ২০১৫, ১১:৩৬

বৈশাখে ছেলেদের পছন্দের পোশাক পাঞ্জাবি। বাঙালি উৎসবের আমেজ ফুটে ওঠে পাঞ্জাবিতে। তাই নববর্ষের আগেই সবাই ব্যস্ত পাঞ্জাবি কেনায়। নববর্ষকে কেন্দ্র করে নগরীর ফ্যাশন হাউসগুলোর পাঞ্জাবির আয়োজনে আসে নতুন সব সংযোজন। কাটিংয়ে বৈচিত্র্য, রঙের ভিন্নতা আর ডিজাইনে নতুনত্ব। সব কিছু মিলিয়ে চাই বৈশাখের রঙিন পাঞ্জাবি।

বৈশাখের পাঞ্জাবি এখন আর শুধু লাল-সাদা রঙের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সব রংই বৈশাখের পাঞ্জাবিতে মানিয়ে যায় বেশ। লাল, হলুদ, কমলা, বেগুনি, নীল, সবুজ, কালচে লাল রঙের পাঞ্জাবিতে বৈশাখ হয়ে ওঠে আরো রঙিন। কোনোটা এক রঙা আবার কোনোটাতে রয়েছে বিভিন্ন রঙের ছোঁয়া।  

রঙ ফ্যাশন হাউসের কর্ণধার ও ডিজাইনার বিপ্লব সাহা বলেন, ‘প্রতিবারই নববর্ষে আমরা পাঞ্জাবিতে নতুনত্ব আনার চেষ্টা করি। এবার আদি বাংলা বর্ষপঞ্জির মোটিফ ব্যবহার করে পাঞ্জাবি তৈরি করেছি। মূল থিম ছাড়াও নতুন নতুন ডিজাইনের সম্মিলনে উৎসবধর্মী বৈচিত্র্যময় বিশাল সম্ভারের বৈশাখী পাঞ্জাবির আয়োজন করেছি।’  

বিপ্লব সাহা আরো বলেন, ‘বৈশাখের চিরন্তন লাল-সাদার পাশাপাশি পাঞ্জাবিতে রঙ-এর নিজস্ব বৈশিষ্ট্য উজ্জ্বল সব বাহারি রং ব্যবহার করেছি। এ ছাড়া নানা ধরনের সুতি ও সিল্কের কাপড়ের ওপর স্ক্রিন ও ব্লকপ্রিন্ট, হ্যান্ড ও মেশিন এমব্রয়ডারি, কারচুপি, প্যাচওয়ার্ক ও হ্যান্ড পেইন্টের কাজ করেছি নান্দনিকভাবে।’

বিভিন্ন ধরনের মোটিফ ব্যবহার করা হয়েছে পাঞ্জাবির ডিজাইনে। বৈশাখের থিমকে কেন্দ্র করে নানা ধরনের কাজ করা হয়েছে। কিছু কাজ শুধু গলায় আর হাতায় করা হয়েছে। আবার কিছু পাঞ্জাবি রয়েছে যার পুরো ক্যানভাসে কাজ করা হয়েছে। সুতি, সিল্ক এবং হাফসিল্কের পাঞ্জাবির ওপর করা হয়েছে নানা ডিজাইনের কারুকার্য।

এবার শর্ট এবং লং দুই ধরনের পাঞ্জাবিরই চল চোখে পড়ছে। যার যেমন পছন্দ বাছাই করে নিতে পারেন। পরতে পারেন জিন্স অথবা পায়জামার সঙ্গে। আর পায়ে পরুন স্লিপার অথবা নাগরা ডিজাইনের জুতা; যা আপনাকে স্বাচ্ছন্দ্যের পাশাপাশি আধুনিক লুকও এনে দেবে।

যাঁরা ফিটিংস নিয়ে ভয় পাচ্ছেন, তাঁরা চাইলে পাঞ্জাবি বানিয়েও নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে গজকাপড় কিনে দর্জির কাছে নিজের পছন্দের ডিজাইন অনুযায়ী বানিয়ে নিন। এতে খরচটাও থাকবে আপনার হাতের নাগালে।   

Advertisement