Beta

বাণিজ্যমেলা

আসবাবপত্রে বিশেষ ছাড়!

২১ জানুয়ারি ২০১৬, ১১:০৪ | আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০১৬, ১১:০৭

তৌহিদুল ইসলাম তুষার

ঘর সাজাতে আসবাবপত্রের জুড়ি নেই। নিজের ঘরে নতুনত্ব আনতে সবাই বেশি নজর দেন ফার্নিচারের দিকে। তাই সবার চোখ থাকে কমদামে ভালোমানের আসবাব কেনার দিকে। আপনার এমন চাহিদার কথা মাথায় রেখে সাজানো হয়েছে বাণিজ্যমেলার আসবাবের প্যাভিলিয়নগুলো। মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায়, ফার্নিচারের প্রতিটি স্টল-প্যাভিলিয়নেই রয়েছে বিশেষ মূল্যছাড়সহ নানা উপহার। নান্দনিক ডিজাইনের আসবাবপত্র নিয়ে সেজেছে নাভানা, হাতিল, পারটেক্স, আখতার, লিগেসি, নাদিয়া, ব্রাদার্সসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্যাভিলিয়ন।

পারটেক্স
বাণিজ্যমেলায় ঢুকলেই প্রথমে চোখে পড়বে পারটেক্সের প্যাভিলিয়নটি। দৃষ্টিনন্দন একটি অবকাঠামো দেওয়ায় এটি সবার চোখে পড়ার মতো। প্যাভিলিয়নের ভেতরটি সাজানো হয়েছে সব ধরনের আসবাবের সম্ভার দিয়ে। আপনার ঘরটি কীভাবে সাজাবেন, তারই যেন প্রতিরূপ এই প্যাভিলিয়ন। কী নেই এখানে—চেয়ার, খাট, সোফা, ডিভান, সেন্টার টেবিল, বেড ও বেডসাইড টেবিল, ওয়ার্ডরোব, আলমারি, শোকেস, ওপেন শেলফ, বুকশেলফ, টিভি কেবিনেট, মিনি কেবিনেটসহ গৃহস্থালির হরেক রকমের আসবাবপত্র দিয়ে থরে থরে সাজানো প্যাভিলিয়নটি।

মেলা উপলক্ষে তাদের সব ফার্নিচারের ওপর দেওয়া হয়েছে ২০ শতাংশ ডিসকাউন্ট। প্যাভিলিয়ন ভিজিট করলে পাবেন কুপন, যা দিয়ে জিতে নিতে পারেন দারুণ সব আসবাব। এ ছাড়া আগত দর্শনার্থীদের জন্য থাকছে সেলফি কন্টেস্ট। আর প্রতি সপ্তাহে জিতে নিতে পারবেন একটি স্মার্টফোন। 

ব্রাদার্স ফার্নিচার
মেলায় ব্রাদার্সের প্যাভিলিয়নে রয়েছে প্রায় ৪০০ ডিজাইনের ফার্নিচার। যার মধ্যে রয়েছে সোফাসেট, বেডরুম সেট, ডাইনিংসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র। এ ছাড়া ৭০টির মতো নতুন পণ্যও রয়েছে। প্রতিটি সোফাসেট পাবেন ৬০ হাজার থেকে দেড় লাখ, ডাইনিং পাবেন ৫৫ হাজার থেকে ৮৫ হাজার, বেডরুম সেট ৭৫ হাজার থেকে আড়াই লাখ টাকায়। মেলায় আসা ক্রেতারা পাবেন প্রতিটি পণ্যে ৫ থেকে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। এ ছাড়া রয়েছে লাকি কুপন। যেখানে বিজয়ীরা জিতে নিতে পারবেন কুয়ালালামপুর, কাঠমান্ডু ও কক্সবাজার ভ্রমণের সুযোগ।

নাভানা 
বাণিজ্যমেলায় রং-বেরঙের বৈচিত্র্যময় ডিজাইনে কাঠ ও বোর্ডের তৈরি আসবাব নিয়ে এসেছে নাভানা ফার্নিচার। তাদের প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাচ্ছে অফিস ও বাসা সাজানোর হরেক রকম আসবাব।

মেলা উপলক্ষে এসব পণ্যে থাকছে সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। সঙ্গে থাকছে ফ্রি হোম ডেলিভারি। প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্স ম্যানেজার সীমা রায় বলেন, মেলা উপলক্ষে নাভানা ফার্নিচারে বিভিন্ন পণ্যে ক্রেতারা পাচ্ছেন সর্বনিম্ন ৭ থেকে সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ ছাড়। আমাদের কোম্পানির নিজস্ব লোকই বাসায় গিয়ে আসবাবপত্রের ফিটিং করে দেবে, এর জন্যও কোনো ফি লাগবে না। এ ছাড়া রয়েছে কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ। সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংকসহ আটটি ব্যাংকের মাধ্যমে কিস্তিতে ৩ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে মূল্য পরিশোধের সুযোগ পাচ্ছেন। সঙ্গে থাকছে এক বছর বিক্রয়োত্তর সেবা।

আখতার ফার্নিচার
এদিকে, আখতার ফার্নিচার মেলায় ঘর সাজানোর আসবাবে ১৫ শতাংশ ও অফিস আসবাবে ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। এ ছাড়া মেলা চলাকালে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় আখতারের ২৫টি বিক্রয়কেন্দ্র থেকেও ক্রেতারা এ সুবিধা পাবেন। এবার তারা ১৫০-এর অধিক নতুন পণ্য দিয়ে সাজিয়েছে বাণিজ্যমেলায় প্যাভিলিয়নটি। এর মধ্যে রয়েছে বেডসেট, সোফাসেট, ডাইনিং টেবিল, ডিনার ওয়াগন, টিভি ট্রলি ও লাইফস্টাইল পণ্য। এ ছাড়া মেলা উপলক্ষে আখতার ফার্নিচার পাঁচটি বেডরুম সেট নিয়ে এসেছে, যার দাম ধরা হয়েছে এক থেকে দেড় লাখ টাকা। এই ফার্নিচার সেট ক্রেতাদের আকৃষ্ট করছে বলে দাবি তাদের। অন্য পণ্যের মধ্যে রয়েছে এসবি-৫২ মডেলের ৪৪ হাজার টাকার খাট, যা মেলায় মাত্র ৩৭ হাজার ৪০০ টাকা। 

হাতিল 
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় হাতিল ফার্নিচার ক্রেতাদের জন্য নতুন ডিজাইনের পণ্য নিয়ে এসেছে। নতুন মডেলের সব ফার্নিচারে ৫ থেকে ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় থাকছে। হাতিল ফার্নিচারের পক্ষ থেকে ইনচার্জ অতুল প্রসাদ সরকার বলেন, চলতি মেলায় সোফা, বেড, ড্রেসিং টেবিল, ডাইনিং টেবিল, অফিশিয়াল টেবিলসহ সব পণ্যই নতুন ডিজাইনের। এই ডিজাইনের পণ্যগুলো ক্রেতারা শুধু মেলায় পাবেন। 

হাতিলের অন্য কোনো শোরুমে এই পণ্যগুলো পাওয়া যাবে না। অন্যান্যের মধ্যে হাতিল ফার্নিচার বেডরুম সেটের মূল্যে ১২ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। আরো দুই ধরনের ড্রইংরুম সেটে ৫ ও ১০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, নতুন মডেলের হাতিল ফার্নিচারের দামও ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে রয়েছে। ক্রেতারা হাতিলের স্টল থেকে সর্বনিম্ন ২৭ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৪৮ হাজার টাকায় বেড কিনতে পারবেন। এ ছাড়া সর্বনিম্ন ৫০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ এক লাখ ১০ হাজার টাকায় সোফা, ডাইনিং টেবিল সর্বনিম্ন ৫০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৮০ হাজার  টাকায় বিক্রি করছে হাতিল ফার্নিচার।

নাদিয়া 
বাণিজ্যমেলায় নাদিয়া ফার্নিচারের প্রধান আকর্ষণ বেড কাম সোফা। নাদিয়া ফার্নিচার স্টলের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ সাইফুল ইসলাম বলেন, বাণিজ্যমেলায় নাদিয়ার প্রধান আকর্ষণ বেড কাম সোফা।

এটি বেড ও সোফা হিসেবে আলাদাভাবে ব্যবহার করা যাবে। এ পণ্যটি সম্পূর্ণ নতুন। শুধু মেলায় আসা ক্রেতারা এটি কিনতে পারবেন। এর মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৮৯ হাজার টাকা। এ ছাড়া নাদিয়া ফার্নিচারের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিভিন্ন পণ্যে সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আর সব ধরনের পণ্যে সর্বনিম্ন ১০ শতাংশ ছাড় তো রয়েছেই। এ ছাড়া তাদের ৮০ শতাংশ ফার্নিচারই সম্পূর্ণ নতুন মডেলের। মেলা উপলক্ষে ক্রেতাদের জন্য বিশেষ নকশায় ও কারুকার্যে এগুলো তৈরি করা হয়েছে। 

নাদিয়ার স্টলে সর্বোচ্চ ৪৫ হাজার থেকে শুরু করে সর্বনিম্ন ২২ হাজার টাকায় বেড পাবেন ক্রেতারা। সোফা সর্বোচ্চ ৯০ হাজার থেকে সর্বনিম্ন ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। ডাইনিং টেবিল সর্বোচ্চ এক লাখ ২০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বনিম্ন ৫০ হাজার টাকা পাবেন ক্রেতারা।

লিগেসি ফার্নিচার 
বাণিজ্যমেলায় আকর্ষণীয় ও মন-মাতানো ফার্নিচার নিয়ে এসেছে লিগেসি ফার্নিচার। একই সঙ্গে তাদের সব ফার্নিচারে রয়েছে ৫ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। অন্যান্য ফার্নিচারের চেয়ে লিগেসিতে রয়েছে দেশীয় ও পাশ্চাত্যের আদলে তৈরি দৃষ্টিনন্দন রূপরেখা। লিগেসির ম্যানেজার-সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এস কে সাদিকুল ইসলাম বলেন, লিগেসি ফার্নিচার এবারের মেলায় অত্যাধুনিক আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন পণ্য এনেছে, যার বেশির ভাগ কাঠ চট্টগ্রাম ও মিয়ানমারের সেগুন কাঠ এবং কিছু ভালোমানের মেহগনি কাঠের তৈরি। এ ছাড়া পণ্য কিনলেই র‍্যাফেল ড্রয়ে অংশ নেওয়ার সুযোগ থাকছে।

আরো আছে ধামাকা অফার, ১৫ লাখ বা তার বেশি টাকার পণ্য কিনলেই ঢাকা-নিউইয়র্ক বিমান টিকেট এবং র‍্যাফেল ড্রতে ঢাকা-ব্যাংকক, ঢাকা-কাঠমান্ডু এবং কলকাতার বিমান টিকেট পাওয়ার সুযোগ। ক্রেতাদের সুবিধার্থে হোম ডেলিভারির সুযোগও আছে। প্যাভিলিয়নটিতে অন্যান্য আসবাবের মধ্যে পাওয়া যাবে খাট, সোফা, খাবার টেবিল সেট, ওয়ার্ডরোব, ড্রেসিংটেবিল ইত্যাদি।

Advertisement