Beta

রাশিফল

জেনে নিন কেমন যাবে আপনার এ বছর

০৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:৪৩

মেষ রাশি (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

বছরের প্রারম্ভে অপ্রত্যাশিত ঘটনাবলীর কারক গ্রহ ইউরেনাস মেষরাশিতে অবস্থান করছে। চতুর্থে রাহু, দশমে কেতু, একাদশে নেপচুন রয়েছে। সপ্তমে শুক্র, অষ্টমে বুধ ও বৃহস্পতি, নবমে শনি, রবি ও প্লুটো এবং দ্বাদশে মঙ্গল অবস্থান করছে। এপ্রিল মাসের শুরুতে বৃহস্পতি ধনুতে প্রবেশ করবে। গ্রহসমুহের উপরোক্ত অবস্থানের ফলে মেষের জাতক জাতিকার জন্য বছরটি সামগ্রিকভাবে মিশ্র সম্ভাবনাময়। এ বছর তারা নানাবিধ অপ্রত্যাশিত ঘটনার সম্মুখীন হতে পারেন। বছরের প্রথম দিকে পেটের পীড়ায় ভোগার আশঙ্কা আছে। হৃদরোগীদেরকে সারা বছরই শরীর স্বাস্থ্য সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। দাম্পত্য জীবন ভালো যাবে। অবিবাহিতদের বিয়ের সম্ভাবনা আছে। দ্বিতীয়াধি প্রতি শুক্র সপ্তমে থেকে স্বগৃহে দৃষ্টি দিচ্ছে। ফলে বৈবাহিক সূত্রে বা পেশাগত সূত্র থেকে অর্থাগমনের সম্ভাবনা রয়েছে। সামগ্রিকভাবে এ বছর আর্থিক দিক ভালো যাবে। নবমপতি বৃহস্পতির দৃষ্টি ধনস্থানে সারা বছরই থাকবে। মাতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। ছোট ভাইবোনদের সঙ্গে কোনো কারণে মতবিরোধ দেখা দিতে পারে। প্রেম রোমান্স প্রভৃতির বিষয়ে এ বছর প্রচুর সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। ভুল বোঝাবুঝি জনিত কারণে রোমান্টিক সম্পর্কে ফাটল ধরতে পারে। ছোট খাটো ব্যাপার নিয়ে সন্তান্দের সঙ্গেও ভুল বোঝাবুঝি দেখা দিতে পারে। শত্রুরা বিবিন্ন সময় ক্ষতি করার চেষ্টা করবে। অপ্রিয় সত্য কথা কারো মুখের উপর না বললেই ভালো করবেন। কর্মসংস্থান অথবা পেশাগত প্রয়োজনে বিদেশ যাত্রার সম্ভাবনা আছে। উচ্চ শিক্ষার্থীদের জন্য সময় অনুকূল থাকবে। পরীক্ষায় প্রত্যাশিত ফল লাভের সম্ভাবনা আছে।

বৃষ রাশি (২১ এপ্রিল-২১ মে)

মৃত্তিকা রাশি বৃষের জাতক জাতিকার জন্য বছরের শুরুটা ভালো গেলেও এপ্রিল থেকে শরীর স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো নাও যেতে পারে। যানবাহনে গমনাগমনে সতর্কতা অবলম্বন করুন। কোনো ধরনের দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে পারেন। দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো যাবে। অবিবাহিতদের বিবাহের ব্যাপারে সময় সারাবছরই অনুকূল থাকবে। আর্থিক ব্যাপারে বছরটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। বিনিয়োগে এবছর কোনো ঝুকি না নিলেই ভালো করবেন। পিতৃ স্বাস্থ্য বছরের প্রথমার্ধে খুব একটা ভালো যাবে না। মায়ের শরীর স্বাস্থ্য সম্পর্কেও সতর্ক থাকতে হবে। যৌথ ও অংশিদারি ব্যবসায় সুফল পাবেন। রোম্যান্টিক বিষয়াদির ব্যাপারে বছরের প্রথম থেকেই সতর্ক থাকতে হবে। তবে এপ্রিলের পর থেকে পরিস্থিতি অনেকটাই অনুকূল থাকবে। কর্ম স্থলে এ বছর প্রায়ই ভুল বোঝাবুঝির সম্মুখীন হতে পারেন। সতর্ক থাকার চাষ্ঠা করুন। বিদ্যার্থীদের জন্য সময় অনুকূল থাকবে। তবে বছরের প্রথম তিনমাস মাঝে মাঝেই মনোযোগ বিক্ষিপ্ত হতে পারে। দ্বাদশে ইউরেনাসের অবস্থানগত কারণে অপ্রত্যাশিত ব্যয় বৃদ্ধির আশঙ্কা সারাবছরই থাকবে। অষ্টমে শনি, বৃহস্পতি, প্লুটো এবং কেতুর উপস্থিতির ফলে শরীর স্বাস্থ্য সম্পর্কে কমবেশি সারা বছরই উদ্বিগ্ন থাকতে হবে। কোনো অসুস্থতাকেই অবহেলা করা যাবে না। পারিবারিক কোনো ব্যাপারে পিতা বা পিতৃস্থানীয় কারো সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হতে পারে। এ বছর কারো কারো তীর্থ যাত্রার আশঙ্কা পূর্ণ হতে পারে। অন্যান্য দিক ভালো যাবে বলে আশা করা যায়।

মিথুন রাশি (২২ মে- ২১ জুন)

বায়ু রাশি মিথুনের জাতক জাতিকার জন্য বছরের শুরুটা ভালো গেলেও মাঝে মাঝেই আপনজনদের সঙ্গে ভুলবোঝাবুঝি দেখা দিতে পারে। এ বছর অপ্রত্যাশিত সূত্র থেকে প্রাপ্তির সম্ভাবনা যেমন আছে তেমনি ব্যয়ধিক্যের আশঙ্কাও যথেষ্ট রয়েছে। দ্বাদশে বৃহস্পতির দৃষ্টির ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভালো কাজে অর্থ ব্যয় হবে। সম্ভাব্য ক্ষেত্রে সন্তান লাভের যোগ আছে। প্রেম-রোমান্স প্রভৃতির জন্যও অনুকূল থাকবে। দাম্পত্য ভুল বোঝাবুঝি এ বছর এ বছর এড়িয়ে চললে ভালো করবেন। অন্যথায় সামান্য ভুল বোঝাবুঝি থেকে বড় ধরণের সমস্যার উদ্ভদ হতে পারে। বছরের শুরুতে মাতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না । প্রত্যাশা পূরণের জন্য এপ্রিলের শুরু থেকে সময় মোটামুটি অনুকূল থাকবে। এ বছর মাঝে মাঝেই অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কা আছে। অকারণ দুশ্চিন্তা পরিহার করার চেষ্টা করুন। চাকরিজীবীদের পদন্নোতির জন্য বছরের দ্বিতীয়ার্ধই উত্তম সময়। যৌথ ও অংশীদারি ব্যবসায় সারা বছরই সতর্ক থাকতে হবে। ভুল বুঝবুঝি জনিত কারণে এক্ষেত্রে বড় ধরণের কোনো উদ্ভব হতে পারে। পারিবারিক ছোট খাটো ব্যাপারে ভাই বোনদের সঙ্গেও মতানৈক্য দেখা দিতে পারে। বিদ্যার্থীদের জন্য বছরটি ভালো যাবে। উচ্চ শিক্ষার্থে বিদেশ যাত্রার প্রচেষ্টাও ফলপ্রসূ হতে পারে। সামগ্রিক ভাবে ভাগ্যের অনুকূল গেলেও অপ্রত্যাশিত বা রহস্যজনক কারণে কারো কারো ভাগ্য বিপর্যয়ের আশঙ্কাও রয়েছে। পিতৃস্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো যাবে। কর্মস্থলে প্রাপ্ত সুযোগকে কাজে লাগাবার চেষ্টা করুন। অন্যান্য দিক ভালো যেতে পারে।

কর্কট রাশি (২২ জুন-২২ জুলাই)

জলজ রাশি কর্কটের জাতক জাতিকার জন্য বছরের শুরুটা খুব একটা ভালো নাও যেতে পারে। স্বক্ষেত্রে রাহুর অবস্থিতির ফলে বছরের শুরু থেকেই অনাকাঙ্ক্ষিত শত্রুতার মুখোমুখি হতে পারেন। পরিচিত শত্রুদের সঙ্গে ব্যবহারে কৌশলী হলে ভালো করবেন। শরীর খুব একটা ভালো নাও যেতে পারে। পথ চালাচলে সতর্কতা অবলম্বন করুন। অন্যথায় কোনো ধরণের দুর্ঘটনার সম্মুখীণ হতে পারেন। মাতৃস্বাস্থ্যের ব্যাপারে বছরের শুরু থেকেই সতর্ক থাকতে হবে। এ বছর নিঃসন্তান দম্পতিদের সন্তান লাভের সম্ভাবনা আছে। প্রেম রোমান্স প্রভৃতির জন্যও সময় অনুকূল থাকবে। তবে এসব ক্ষেত্রে অতিরিক্ত আবেগ ও চঞ্চলতা ক্ষতির কারণ হতে পারে। এপ্রিলের শুরু থেকে কারো কারো বিদেশ যাত্রার আশঙ্কা পূর্ণতা পেতে পারে। উচ্চ শিক্ষা বা কর্ম সংস্থানার্থে বিদেশ যাত্রার জন্য বছরটি শুভ। ব্যবসায়ীরা বছরের প্রথম তিনমাস বড়ধরনের কোনো ঝুকি না নিলেই ভালো করবেন। এপ্রিলের শুরু থেকে আর্থিক দিক মোটামুটি ভালো যাবে। তবে এ বছর ঝুঁকিপূর্ণ বিনিয়োগ না করলেই ভালো করবেন। অন্যান্য দিক মোটামুটি ভালো যাবে বলে আশা করা যায়।

সিংহ রাশি (২৩ জুলাই- ২৩ আগস্ট)

নৈসর্গিক রাশিচক্রে অগ্নিচিহ্নিত রাশি সিংহের জাতক জাতিকাকে বছরের শুরু থেকেই ভুল বোঝাবুঝির সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। এ বছর একাধিকবার ভুল বুঝবুঝির স্বীকার হতে পারেন। এ ব্যাপারে শুরু থেকেই সতর্ক থাকলে ভালো করবেন। আর্থিক বিষয়াদিতে ভাগ্যের আনুকূল্য পেলেও ব্যয়াধিক্যের জন্য মাঝে মাঝেই বিব্রতবোধ করতে পারেন। তবে এ বছর কোনো ধরণের উচ্চাশা পূরণের সুযোগ পেতে পারেন। শরীর খুব একটাভালো যাবে না। যন্ত্রপাতি ও অস্ত্রের ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বন করুন। অন্যথায় কোনো ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা দেখা দিতে পারে। ছোট ভাই বোনদের সঙ্গে মতানৈক্য বা ভুল বোঝাবুঝির আশঙ্কা রয়েছে। মাতৃস্বাস্থ ভালো যাবে। প্রেম রোমান্স প্রভৃতি বিষয়ে যথেষ্ট সতর্ক থাকতে হবে। সামান্য ভুল বোঝাবুঝিজনিত কারণে সম্পর্কে ফাটল ধরতে পারে। বিদ্যার্থীদের বছরের শেষ দিকে কোনো ধরনের প্রতিকূলতা মোকাবিলা করতে হতে পারে। খাওয়া দাওয়ার ক্ষেত্রে বছরের শুরু থেকেই সতর্কতা অবলম্বন করুন। তা না হলে একাধিকবার পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হতে পারেন। এ বছর তীর্থযাত্রার আশঙ্কা পূর হতে পারে। নিঃসন্তান দম্পতিদের সন্তান লাভের যোগ আছে। বছরের দ্বিতীয়ার্ধে পিতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। এ বছর চাকরিজীবীদের অনেকের পদোন্নতির আশা পূর্ণতা পেতে পারে।

কন্যা রাশি (২৪ আগস-২৩ সেপ্টেম্বর)

কন্যা রাশির জাতক জাতিকার বছরের শুরু থেকেই আর্থিক দিক ভালো যাবে বলে আশা করা যায়। একাধিক সূত্র থেকে অর্থাগমন হতে পারে। রহস্যজনক কারণে ব্যয়াধিক্যের আশঙ্কাও একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না। শরীর স্বাস্থ্য সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। কোনো কারণে শরীর থেকে রক্তক্ষরণ হতে পারে। অস্ত্রপাচারের আশঙ্কাও রয়েছে। এ ব্যাপারে বছরের শুরু থেকেই সতর্ক থাকলে ভালো করবেন। ছোট ভাই বোনদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকতে পারে। মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে না। প্রত্যাশ পূরণের ক্ষেত্রে হতাশা জনক পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে। সন্তানের স্বাস্থ্যগত বিষয়াদি নিয়ে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হতে পারেন। প্রেম রোমান্স প্রভৃতির জন্য বছরটি শুভ বলা যাবে না। যৌথ ও অংশীদারি ব্যবসার জন্য বছরটি মোটামুটি শুভ। তবে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে চিন্তা ভাবনা করে বিনিয়োগ করলে ভালো করবেন। এ ব্যাপারে আবেগের বশবর্তী না হয়ে ধীরস্থির ভাবে সিদ্ধান্ত নিন। পারিবারিক যেকোনো বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে চঞ্চলতা পরিহার করুন। অবিবাহিতদের অনেকেরই এ বছর বিয়ের সম্ভাবনা আছে। তবে বিয়ের ব্যাপারে অভিভাবকদের সিদ্ধান্ত মেনে নিলেই ভালো করবেন। বিদ্যার্থীদের জন্য সময় অনুকূল থাকবে। এ ক্ষেত্রে সিদ্ধান্তে অটল থাকার চেষ্টা করুন। বছরের শেষ দিকে চাকুরিজীবীদের সতর্ক থাকতে হবে। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কোনো কারণে ভুল বোঝাবুঝি দেখা দিতে পারে। অন্যান্য দিক ভালো যাবে বলে আশা করা যায়।

তুলা রাশি (২৪ সেপ্টেম্বর- ২৩ অক্টোবর)

বায়ু রাশি তুলার জাতক জাতিকার জন্য বছরটি সামগ্রিকভাব শুভ সম্ভাবনাময়। রাশ্যাধিপতি শুক্র বছরের শুরুতেই স্বক্ষেত্রে অবস্থান করছে। এবং শুভ গ্রহ বৃহস্পতি ধনস্থানে রয়েছে। তুলার জাতক জাতিকার শরীর স্বাস্থ্য ভালো যাবে। মানসিক প্রশান্তি বজায় থাকবে। সৃজনশীল কাজকর্মে সাফল্য আশা করা যায়। অবিবাহিতদের অপ্রত্যাশিত বিয়ের যোগ আছে। চতুর্থে কেতুর অবস্থানের ফলে প্রত্যাশা পূরণের ক্ষেত্রে মাঝে মাঝে অনাকাঙ্ক্ষিত বাধার সম্মুখীন হতে পারেন। আর্থিক দিক ভাল যাবে। ধনস্থানে নবমপতি বুধের অবস্থানহেতু একাধিক সূত্র থেকে অর্থাগমন হতে পারে। তৃতীয়ে শনি থাকায় কনিষ্ট ভাইবোনদের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে জটিলতা দেখা দিতে পারে। পরবর্তী কালে এ ক্ষেত্রে কেতু প্রবেশ করলে এ আশঙ্কা আরো বৃদ্ধি পাবে। রহস্যজনক গ্রহ নেপচুনের পঞ্চমে অবস্থিতির ফলে প্রেমিক প্রেমিকাদের মাঝে মাঝেই স্বপ্নভঙ্গের আশঙ্কা তৈরি করবে। প্রণয়ে ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলতে না পারলে বিপর্যয়ের আশঙ্কা আছে। ছাত্রছাত্রীদের জন্য মিশ্র সম্ভাবনাময়। পড়াশুনায় অধিকতর মনোযোগী হওয়ার চেষ্টা করুন। অন্যথায় কাঙ্ক্ষিত ফল লাভ নাও করতে পারেন। শত্রু সম্পর্কে বছরের শুরু থেকে সতর্ক থাকুন। সামগ্রিক ভাবে শরীর ভালো থাকলেও বয়োবৃদ্ধদের এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। বড় ভাইবোনদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকতে পারে। তবে তাদের শরীর স্বাস্থ্যের ব্যাপারে দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হতে পারেন।

বৃশ্চিক রাশি (২৪ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

ধনপতি বৃহস্পতি এবং আয়পতি বুধ বছরের শুরুতে স্বক্ষেত্রে অবস্থান করছে। আশাকরা যায় এ বছর বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকার আর্থিক দিক ভালো যাবে। একাধিক সূত্র থেকে অর্থাগম হতে পারে। তবে ব্যয়পতি শুক্র ব্যয়স্থানে চন্দ্রের সঙ্গে বসে আছে। ফলে নানা করণে ব্যয়াধিক্য দেখা দিতে পারে। দশমপতি রবি দ্বিতীয়ে অবস্থান করছে ফলে কর্ম পরিবেশ অনুকূল থাকবে। কর্মস্থলে নিজের কর্তৃত্ব বজায় রাখতে পারবেন। প্রণয়ে সাফল্যের সম্ভাবনা আছে। রোমান্টিক প্রস্তাবে সাড়া পেতে পারেন। মাতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। মায়ের কোনো ধরনের দূরারোগ্য ব্যাধি ধরা পড়তে পারে। ছোট ভাইবোনদের সঙ্গে সম্পর্ক খুব একটা ভালো যাবে না। মাঝেমধ্যে ভুল বুঝবুঝি দেখা দিতে পারে। মনের উদারতা দিয়ে ভুল বোঝাবুঝি পরিহার করার চাষ্টা করুণ। অসুস্থ পিতার শরীর স্বাস্থ্য নিয়েও উদ্বেগ দেখা দিতে পারে। বিদ্যার্থীদের জন্য বছরটি শুভ সম্ভাবনাময়। পড়াশোনায় মনোযোগী হলে ভালো করবেন। বছরের দ্বিতীয়ার্ধে দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো থাকবে এ সময় অবিবাহিতদের কারো কারো বিয়ে হতে পারে। অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যয় রোধ করার চাষ্টা করুন। বছরের অধিকাংশ সময় বৃহস্পতির বৃশ্চিকে অবস্থানের ফলে আত্মমর্যাদাবোধ বৃদ্ধি পাবে। অন্যান্য দিক ভালো যেতে পারে।

ধনু রাশি (২২ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর)

অগ্নিরাশি ধনুতে বছরের শুরু থেকেই শনি রয়েছে এবং শনি সারা বছরই এ রাশিতে অবস্থান করবে। রাশ্যাধিপতি বৃহস্পতি থাকবে দ্বাদশে। ফলে বছরটি অগ্নিরাশি ধনুর জাতক জাতিকার জন্য মিশ্র ফলদায়ক হতে পারে। ব্যয়াধিক্যের আশঙ্কা আছে। পক্ষান্তরে মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। প্রত্যাশা পূরণের জন্যও বছরটি শুভ। কিন্তু শনির প্রভাবে কাজকর্ম বাধাগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পিতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। চাকরিজীবীরা কর্মস্থলে বিবিধ্মুখী সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি দেখা দিতে পারে। ধৈর্য ও সহিষ্ণুতার সঙ্গে মাথা খাটিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করলে সামলে উঠতে পারবেন। বছরের অধিকাংশ সময় কেতু স্বক্ষেত্রে এবং রাহু সপ্তমে থাকবে। ফলে শরীর স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো থাকবে না। ঘরের বাহিরে নানা ক্ষেত্রে ভুল বোঝাবুঝির সম্মুখীন হতে পারেন। দাম্পত্য ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। স্বামী বা স্ত্রীর অসুস্থতার জন্যও মন দুশ্চিন্তা গ্রস্থ থাকতে পারে। বিদ্যার্থীদের জন্য সামগ্রিকভাবে সময় অনুকূল থাকবে। তবে মন মাঝেমধ্যে বিক্ষিপ্ত হতে পারে। জেষ্ঠ ভ্রাতা ভগ্নিদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকলেও কনিষ্ঠদের সঙ্গে মাঝে মাঝে ভুল বোঝাবুঝি দেখা দিতে পারে। এ ক্ষেত্রে কিছুটা কৌশলী হলে ভালো করবেন। শত্রু সম্পর্কে সারা বছরই সতর্ক থাকার চেষ্টা করুন।

মকর রাশি (২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারি)

বছরের শুরুতে কেতু মকরে অবস্থান করছে। সপ্তমে রাহু রয়েছে। ফলে মৃত্তিকা রাশি মকরের জাতক জাতিকা এ বছরে নানা ধরনের ভুল বোঝাবুঝির স্বীকার হবেন। গোপন শত্রু বৃদ্ধি পাবে। দ্বাদশে সনির অবস্থানহেতুর ভ্রমণ বাধাগ্রস্ত হতে পারে এবং বিদেশ যাত্রার কোনো সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে। পক্ষন্তরে দ্বাদশে রবির অবস্থানের জন্য ব্যয়াধিক্য দেখা দিতে পারে। ধনস্থানে নেপচুন অবস্থান করছে। রহস্যজনক সূত্র থেকে অর্থাগমের সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যায় না। তৃতীয় অবস্থিত মঙ্গল কনিষ্ঠ ভ্রাতা ভগ্নিদের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টিতে ইন্দন জোগাতে পারে। তবে এক্ষেত্রে বৃহস্পতির দৃষ্টি ঐ বিরোধকে খুব একটা বাড়তে দিবে না। মাতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। কিন্তু স্বক্ষেত্র থেকে শুত্রের দৃষ্টির ফলে মায়ের স্বাস্থ্যগত সমস্যা খুবএকটা প্রকট আকার আকার ধারণ করবে না। দশমে শুক্রের অবস্থিতি জনিত কারণে পিতার শরীর-স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো যাবে। সপ্তমে রাহু থাকলেও বৃহস্পতির দৃষ্টির ফলে দাম্পত্য শান্তি খুব একটা বিঘ্নিত হবে না। পঞ্চমে বুধ ও বৃহস্পতি দৃষ্টির ফলে প্রণয় সংক্রান্ত বিষয়ে সাফল্যের সম্ভাবনা আছে। তবে এক্ষেত্রে অনৈতিক কিছুটা না করলেই ভালো করবেন। শরীর স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। বাত, রক্তচাপ এবং হৃদযন্ত্রের কোনো সমস্যায় ভুগতে পারেন। কর্ম পরিবেশ অনুকূল থাকবে। চাকরিজীবীদের পদোন্নতির সম্ভাবনা আছে। অন্যান্য দিক ভালো যেতে পারে।

কুম্ভ রাশি (২১ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

কুম্ভ রাশিতে সারাবছরই নেপচুন অবস্থান করবে এবং শনির দৃষ্টি থাকবে। যার ফলে কুম্ভের জাতক জাতিকা অপ্রত্যাশিত কারণে ভুল বোঝাবুঝির স্বীকার হতে পারেন। একাদশে শনি আয় উপার্জন বাধাগ্রস্ত করতে পারে। তবে দ্বিতীয়াধি পতি বৃহস্পতির দৃষ্টি ধনস্থানে থাকার ফলে এ বাধা প্রকট আকার ধারণ করবে না। ফলে আর্থিক দিক মোটামুটি ভালো থাকতে পারে। মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে বলে আশা করা যায়। অসুস্থ মায়ের আরোগ্য লাভের সম্ভাবনাও রয়েছে। শরীর সম্পর্কে সারাবছরই সতর্ক থাকতে হবে। যেকোনো স্বাস্থ্যগত সমস্যায় সময়মত চিকিৎসকের পরামর্শ নিলে ভালো করবেন। চলাফেরায় সতর্ক থাকুন। অন্যথায় শরীরের নিম্নাংশে আঘাত প্রাপ্তির আশঙ্কা রয়েছে। দাম্পত্য ক্ষেত্রে যেকোনো ধরনের ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলুন। ছোটখাটো বিষয় নিয়েও স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মতানৈক্য দেখা দিতে পারে, যা পরবর্তীকালে দাম্পত্য আশান্তির কারণ হয়ে দাড়াতে পারে। বিবিধ্মুখি প্রতিকূলতা সত্বেও এ বছর ভাগ্যের আনুকূল্য পেতে পারেন। কর্ম পরিবেশ অনুকূল থাকবে। চাকরিজীবীদের পদোন্নতির সম্ভাবনা আছে। বিদ্যার্থীদের এ বছর পড়াশুনায় অধিকতর মনোযোগী হতে হবে। অন্যথায় পরীক্ষায় ফল বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিতে পারে। অন্যান্য দিক ভালো যেতে পারে।

মীন রাশি (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

জলজ রাশি মীনের জাতক জাতিকার জন্য বছরটি শুভ সম্ভাবনাময়। স্বক্ষেত্রে রাশ্যাধিপতি বৃহস্পতির দৃষ্টির ফলে যেকোনো প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সহজ হতে পারে। বছরটি ব্যক্তিত্ব বিকাশেও সহায়ক হবে ব্লে আশা করা যায়। যেকোনো ধরনের ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলার চাষ্টা করুন। অন্যথায় বিপর্যস্ত হওয়ার আশঙ্কা আছে। দশমে অবস্থিত শনি করমক্ষেত্রে কোনো ধরনের বৈরিতার সম্মুখীন করতে পারে। তবে দশমে রবিও অবস্থান করছে। ফলে শনির প্রভাব যতটা প্রকট হতে পারত ততটা না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ধনপতি মঙ্গল বছরের শুরুতে মীনে অবস্থানের ফলে আর্থিক দিক ভালো যাবে। স্বামী বা স্ত্রীর শরীর থেকে রক্তক্ষরণের আশঙ্কা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যায় না। অর্শরোগীদের এব্যাপারে বছরের শুরু থেকেই সতর্ক থাকতে হবে। তা ছাড়া মীন রাশি কোনো জাতক জাতিকা এমন কোনো দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হতে পারেন যা সহজে নিরাময়যোগ্য নয়। বিদ্যার্থীদের বছরের শুরু থেকে পড়াশোনায় সতর্ক থাকতে হবে। অসতর্কতা জনিত কারণে বিদ্যার্থীদের কারো কারো সাফল্য বাধাগ্রস্ত হতে পারে। পিতৃস্বাস্থ্য খুব একটা ভালো যাবে না। বড়ভাইবোনদের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোনো জটিলতার সৃষ্ট হতে পারে। এ ক্ষেত্রে যেকোনো পক্ষ কারো দ্বারা প্ররোচিত হতে বিভ্রান্ত হতে পারেন। সন্তান সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কারো সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়তে পারেন। অন্যান্য দিক ভালো যেতে পারে।

Advertisement