Beta

বসুন্ধরা সিটিতে ‘সারা’ ব্র্যান্ডের দ্বিতীয় আউটলেট উদ্বোধন

১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:৩৩ | আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৯:০১

ফিচার ডেস্ক

রাজধানীর পান্থপথের বসুন্ধরা সিটিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ‘সারা’ ব্র্যান্ডের দ্বিতীয় আউটলেট উদ্বোধন করা হয়েছে। সাবেক ক্রিকেটার খালেদ মাসুদ পাইলট ও অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা এর উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে খালেদ মাসুদ পাইলট বলেন, সাড়া ব্র্যান্ডের জন্য শুভকামনা থাকবে। এই ব্র্যান্ডের পোশাকগুলো আরামদায়ক। আশা করছি, সবার ভালো লাগবে।

অন্যদিকে, মাসুমা রহমান নাবিলা বলেন, সারার অনুষ্ঠানে এসে ভালো লাগছে। এখানকার সালোয়ার কামিজগুলো বেশি ভালো লেগেছে আমার। ভাবছি, নিয়মিত সারার পোশাক পরব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সারা লাইফস্টাইল লিমিটেড ও স্নোটেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম খালেদ, পরিচালক শরীফুন নেসা, ফ্যাশন ডিজাইনার কাশফীয়া নেহরীন, সাবিহা নাহিয়ান মিম, শামীম রহমান প্রমুখ।

সারা ব্র্যান্ডের দ্বিতীয় আউটলেট বসুন্ধরা সিটিতে চালু করে সুন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন এস এম খালেদ। এনটিভি অনলাইনকে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে এস এম খালেদ বলেন, সারার দ্বিতীয় আউটলেট করতে পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। অনেকদিন ধরে আমরা অপেক্ষা করেছিলাম ভালো লোকেশনের জন্য। আমাদের তৈরি পোশাকের গুণগত মান খুব ভালো। আমরা আশা করছি, সামনে আরো ভালো কিছু করতে পারব। ঢাকায় আরো ভালো লোকেশন আমরা খুঁজছি।সারা পুরো দেশে আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই। আমরা সবাই টিম ওয়ার্ক করছি। সবাই দোয়া করবেন।

সারা ব্র্যান্ডের দ্বিতীয় আউটলেটে নতুন কী পাওয়া যাবে জানতে চাইলে শরীফুন নেসা বলেন, শীতের পোশাক ও পূজার কালেকশন আমরা এনেছি। লং শার্ট ও পাঞ্জাবি রয়েছে। এ ছাড়া জ্যাকেটের বড় কালেকশন সারাতে পাওয়া যাবে। নারী-পুরুষ সবার জন্য আমরা পোশাক এনেছি।

শরীফুন নেসা আরো বললেন, আশা করছি, বসুন্ধরা সিটিতে আমরা ভালো সাড়া পাব। কারণ বসুন্ধরা অনেক বড় জায়গা। এখানে বিশাল জনগোষ্ঠী প্রতিনিয়ত আসছে।

সারার পোশাক নিয়ে এর ফ্যাশন ডিজাইনাররাও উচ্ছ্বসিত। সাবিহা নাহিয়ান মিম পূজা উপলক্ষে বেশকিছু পাঞ্জাবি ডিজাইন করেছেন। তিনি বলেন, সাদা, মেরুন নীল ও বেগুনি রঙের পাঞ্জাবি সারাতে পাওয়া যাবে। পরিবারের সবার উপযোগী পোশাক সারাতে রয়েছে। এটা ফ্যামিলি শপ। কিছুদিন পর আমরা কাবলি ও ফতুয়া নিয়ে আসব।

ফ্যাশন ডিজাইনার শামীম রহমান সারার জন্য পার্টি ড্রেস তৈরি করেছেন বলে জানান। তিনি বলেন, পার্টিতে পরার জন্য অনেক সালোয়ার কামিজ ডিজাইন করেছি। এ ছাড়া শার্টও ডিজাইন করেছি আমি।

শামীম রহমানের ডিজাইন করা  সালোয়ার কামিজ পরেই সারা ব্র্যান্ডের দ্বিতীয় আউটলেট উদ্বোধন করেছেন নাবিলা। অন্যদিকে, ক্রিকেটার খালেদ মাসুদ পাইলটও সারা  ব্র্যান্ডের সাদা শার্ট পরে অনুষ্ঠানে এসেছিলেন।

স্নোটেক্স ২০০০ সালে বায়িং হাউজের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। আজকের স্নোটেক্স হয়ে উঠেছে তিনটি বড় কারখানার একটি প্রতিষ্ঠান রূপে। স্নোটেক্স ২০০৫ সালে নিজেদের প্রথম কারখানা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে স্নোটেক্স অ্যাপারেলস।

এরপর সেই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে ‘কাট অ্যান্ড সিউ’ এবং ২০১৪ সালে ‘স্নোটেক্স আউটওয়্যার’ প্রতিষ্ঠিত করা হয়। স্নোটেক্স আউটওয়ার গ্রিন ফ্যাক্টরি হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছে ইউএসজিবিসির লিড গোল্ড সার্টিফিকেটে। এটি এখন ১০ হাজারের বেশি মানুষের কর্মসংস্থান করে যাচ্ছে। যেটি ২০২০ সালের মধ্যে প্রায় ১৮ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের জায়গা হয়ে দাঁড়াবে।

বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত স্নোটেক্স তাদের নিজস্ব ব্র্যান্ড সারা প্রতিষ্ঠা করেছে সারা লাইফস্টাইল লিমিটেডের মাধ্যমে।

চলতি বছরে ১২ মে সারা ব্র্যান্ডের প্রথম আউটলেট উদ্বোধন হয় মিরপুরে। মিরপুরে এই আউটলেটটির ঠিকানা : প্লট নম্বর : ১০, ব্লক নম্বর : ক, সেকশন : ৬, সেনপাড়া, মিরপুর।

এই প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ড সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যের প্রয়োজনে যোগাযোগ- ইয়াসিন আরাফাত, কো-অর্ডিনেটর, সারা লাইফস্টাইল, মোবাইল : ০১৭১৭২২৬৫২৫।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement