কয়েদিদের তৈরি পণ্য বাণিজ্য মেলায়

১১ জানুয়ারি ২০১৮, ০৯:৩৯

জেলখানার কয়েদিদের উৎপাদিত পণ্য এসেছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়। কয়েদিরা কারাদণ্ডের অংশ হিসেবেই কারাগারে বসে তৈরি করেন নানা ধরনের গৃহস্থালি পণ্য। এসব পণ্য কয়েকটি কারাগারের বিক্রয়কেন্দ্রে সব সময়ই পাওয়া যায়। তবে এবার কারা কর্তৃপক্ষ কারাপণ্যের প্রচার ও প্রসারের জন্য প্রথমবারের মতো এসব পণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয়কেন্দ্র নিয়ে এসেছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়।

ভিআইপি গেট থেকে প্রবেশ করে হাতের ডানে দোতলা প্যাভিলিয়নটি সাজানো হয়েছে কারাপণ্যে। এখানে পাওয়া যাচ্ছে কাঠ ও পাটের সংমিশ্রণে তৈরি চেয়ার, বেতের চেয়ার, বাঁশের চেয়ার, টেবিল, চায়ের টেবিল, আলমিরা, ড্রেসিং টেবিল, মোড়া, খাবারের ঢাকনা, সাধারণ ব্যাগ, পাটের ব্যাগ, পাটের ফাইল, ভ্যানিটি ব্যাগ, পুঁতির তৈরি মানিব্যাগ, জুতা, বিছানার চাদর, কাপড়, পাপোশ, বেকারি বিস্কুট ইত্যাদি। এ স্টলে আরো রয়েছে কৃত্রিম ফুল, ফুলের টব, মালা, রেজিস্টার খাতা, নোটবুকসহ এ জাতীয় একাধিক পণ্য।

কারাপণ্যের প্যাভিলিয়নে আসা ক্রেতা এস এম সাহেদ বলেন, ‘এই স্টলে অনেক ধরনের হস্তশিল্প পণ্য রয়েছে এবং এসব পণ্যের মূল্য অন্য স্টল থেকে কম। আমি মনে করি, সব ক্রেতার একবার হলেও কারাপণ্যের এই প্যাভিলিয়নে ঘুরে যাওয়া এবং হস্তশিল্প পণ্যের সৌন্দর্য উপভোগ করা উচিত।’

কারাপণ্য প্যাভিলিয়নের ম্যানেজার চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের ডেপুটি জেলার মোহাম্মদ জাবেদ ইসলাম বলেন, ‘কারাগার এখন বন্দিশালা নয়, সংশোধনাগার। কারাগারে থাকা বিভিন্ন মেয়াদি সাজাপ্রাপ্ত কয়েদিরাই বানাচ্ছে বিভিন্ন পণ্য। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের পণ্য উৎপাদনে যুক্ত করা হচ্ছে। কয়েদিরা কারাগার থেকে মুক্ত হলেও যেন তারা কাজের মধ্যে যুক্ত থাকতে পারে। এতে করে তাদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতাও কমে আসবে। তাদের তৈরি পণ্য প্রদর্শনী এবং বিক্রয়ের জন্য আমরা এখানে এনেছি।’

কম দামে মানসম্পন্ন হস্তশিল্প পেতে কারাপণ্যের এই স্টলে একবার ঘুরে আসতে পারেন।