Beta

হঠাৎ কিডনি বিকল হলে চিকিৎসায় করণীয়

১৬ মার্চ ২০১৯, ১৭:৫৪

ফিচার ডেস্ক
হঠাৎ কিডনি বিকলের চিকিৎসার বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. জাকির হোসেন। ছবি : এনটিভি

হঠাৎ কিডনি বিকল বা একিউট কিডনি ইনজুরি একটি জটিল সমস্যা। পানিশূন্যতা, ডায়ারিয়া, হঠাৎ তীব্র কাজ করা ইত্যাদি কারণে একিউট কিডনি ইনজুরি হতে পারে।

একিউট কিডনি ইনজুরির চিকিৎসায় করণীয় বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৩৭৭তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. জাকির হোসেন। বর্তমানে তিনি জাতীয় কিডনি ইনস্টিটিউট অ্যান্ড ইউরোলজি কিডনি বিভাগে পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : এই রোগীগুলো এলে আপনারা কীভাবে ব্যবস্থাপনা করেন?

উত্তর : ধরুন, একজন রোগী ডায়ারিয়া হয়ে একিউট কিডনি ইনজুরি নিয়ে এলো। আমরা প্রথমে তার ইতিহাস নিই। পরীক্ষা করি। দেখি তার পালস, ব্লাড প্রেশার স্থিতিপূর্ণ কি না। যদি দেখি স্থিতিপূর্ণ নয়, ব্লাড প্রেশার রয়েছে, তাহলে ধরে নিই তার পানিশূন্যতা রয়েছে। এ রকম হলে আমরা ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা দেই। ডায়ালাইসিস ছাড়াও কিডনিকে ফিরিয়ে নিতে পারি।

যদি তার এমন হয় যে একদম প্রস্রাব হচ্ছে না, সিরাম ক্রিয়েটিনিন যে পরীক্ষা করি, সেটি চার মিলিগ্রামের ওপরে, ব্লাড ইউরিয়া ১৮০ মিলিগ্রামের ওপরে, তখন সাময়িকভাবে কিছু ডায়ালাইসিস লাগে। কিন্তু প্রধান হলো যদি পানি শূন্যতা থাকে, পানিশূন্যতা কমিয়ে দিলে, কিডনি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই স্বাভাবিক হয়ে যায়।

প্রশ্ন : পরে কি তাদের আবার সমস্যা হতে পারে? 

উত্তর : হবে এমন নয়। তবে হতেও পারে। তখন আমরা পরামর্শ দেই ভবিষতে এমন হলে আপনারা ওরস্যালাইন খাবেন, পানিশূন্যতা যেন না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক থাকবেন।

আসলে একিউট কিডনি ডিজিজের চিকিৎসা হয় কারণ ভেদে। কোন কারণে হচ্ছে, সেই অনুযায়ী চিকিৎসা। যদি কোনো সংক্রমণ নিয়ে একিউট কিডনি ফেইলিউর নিয়ে আসে, সেই ক্ষেত্রে কারণটা প্রধান চিকিৎসা। আমরা দেখব, তার কোন অঙ্গে সংক্রমণ হয়েছে, কী জীবাণু দিয়ে হয়েছে, সেটি বের করে চিকিৎসা দিলে ৮৫ ভাগ ক্ষেত্রে রোগী স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যায়।

Advertisement