Beta

‘ছানি হলে দ্রুত অস্ত্রোপচার করতে হবে’

১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৭

ফিচার ডেস্ক
ছানির অস্ত্রোপচারের বিষয়ে আলোচনা করেছেন ডা.শাহীন রেজা চৌধুরী ও ডা.সানজিদা হোসেন। ছবি : এনটিভি

ছানির অন্যতম ও শেষ চিকিৎসা অস্ত্রোপচার। ছানি হলে দ্রুত অস্ত্রোপচার করা প্রয়োজন। আর না হলে চোখ লাল হওয়া, তীব্র ব্যথা করাসহ বিভিন্ন জটিলতা হতে পারে  বলে মতামত বিশেষজ্ঞদের।  

এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৩১৬তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. শাহীন রেজা চৌধুরী।  বর্তমানে তিনি ঢাকা ন্যাশন্যাল মেডিকেল কলেজের চক্ষু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : অনেকে ভাবেন, ছানি পাকলে অস্ত্রোপচার করব। ধারণাটি কি ঠিক?

উত্তর : এটি একটি ভুল ধারণা। ছানি পড়ার সঙ্গে সঙ্গে দেখতে হবে যেই লোকটার ছানি হয়েছে, তার প্রফেশন কী। আমার যদি হয়, আমি এটি এখনই করব। আমি তো বাড়ার জন্য বসে থাকব না। তাহলে আমার তো কাজে ক্ষতি হবে। গ্রামে-গঞ্জের লোকেরা কেন এই কথা বলে? তাদের বুড়ো বয়সে তেমন কোনো কাজ থাকে না। মোটামুটি দেখে শুনে চলতে পারলেই ওরা বলে যে ভালো দেখি। সেই জন্য ওরা দেরি করে। ছানি যখনই পড়ে, আপনার যদি মনে হয় কাজের ক্ষতি হচ্ছে, তখন ছানি অস্ত্রোপচার করতে হয়। ছানি যত আগে অস্ত্রোপচার করবেন, তত রোগীর জন্য ভালো, সার্জনের জন্য ভালো। না হলে ছানি জনিত কারণে অনেক সমস্যা হয়।

ছানি যদি পেকে যায়, চোখ লাল হবে, ব্যথা হবে। ব্যথার জন্য আশপাশের কেউ থাকতে পারবে না। দৌড়াদৌড়ি করে আসবেন, তবে চোখে আর ভালো দেখবেন না। ছানি যদি হয় অস্ত্রোপচার করতে হবে, যত দ্রুত সম্ভব অস্ত্রোপচার করতে হবে, আপনার পেশার সঙ্গে মিল রেখে।

আরেকটি হলো সারা বাংলাদেশে প্রায় সাড়ে সাত লাখ লোক রয়েছে অন্ধ। তার ভেতর ৮০ ভাগ হলো ছানি জনিত। প্রতি বছর সমস্ত জনসংখ্যার এক ভাগের ছানি হচ্ছে। সাড়ে ছয় লাখ বসে রয়েছে। এক লাখ সত্তর থেকে, দুই লাখ পর্যন্ত প্রতি বছর বাড়ছে। একটি ছোট সার্জারি বা অস্ত্রোপচার করে এর সমাধান করা যায়।

Advertisement