Beta

বাইপাস সার্জারি কখন করতে হয়?

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৩১

ফিচার ডেস্ক

হার্টের ব্লক দূর করার চিকিৎসা হলো বাইপাস সার্জারি। কখন এই সার্জারি করা হয়?

এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩২৪৯তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. মো. লোকমান হোসেন।  বর্তমানে তিনি ল্যাব এইড কার্ডিয়াক হাসপাতালের কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের জেষ্ঠ্য পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : কখন রোগীদের বাইপাস সার্জারি করতে বলেন?

উত্তর : এখন বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে থানা,  উপজেলায় কার্ডিওলজিস্ট রয়েছে। কেউ যদি বুক ব্যথা, শ্বাসকষ্ট –এ রকম লক্ষণে পড়ে, সে যদি চিকিৎসকের কাছে যায়, সহজ একটি এক্স-রে, একটি ইসিজি, একটি ইকো, একটি ইটিটি, এটা করলেই, তার হার্টের অবস্থা প্রাথমিকভাবে কি সেটি বোঝা যাবে। ভালোভাবে নির্দিষ্ট করা যাবে একটি এনজিওগ্রাম করে।

এনজিওগ্রামের রিপোর্ট যদি এমন হয়, এনজিওগ্রাম করার পরে দেখা গেল স্বাভাবিক করনারি ভালো, তার আর ওষুধপত্র কিছু লাগবে না, সে বাড়ি চলে যাবে। আবার কারো কারো যদি ছোট ছোট, দুই এক জায়গায় বন্ধ থাকে, সেই ক্ষেত্রে তাকে রিং পরিয়ে দেওয়া যেতে পারে। আবার যাদের ক্ষেত্রে দেখা যায় গোঁড়াটাই বন্ধ এবং অনেক লম্বা বন্ধ, অনেক বন্ধ, ডায়াবেটিস রয়েছে, তাদের জন্য নম্বর ওয়ান চিকিৎসা হলো বাইপাস সার্জারি।

আরেকটি জিনিস বলি, অনেকে ভাবেন, আমার তো ডায়াবেটিস, ডায়াবেটিস হাসপাতালে গিয়ে হার্টের চিকিৎসা করতে হবে। আসলে ডায়াবেটিস কার্ডিয়াক সার্জনের কাছে নিয়ন্ত্রণ করা এক ঘণ্টার ব্যাপার। কার্ডিয়াক সার্জারির ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসের জন্য এক সেকেন্ডও দেরি করতে হবে না। এই বিষয়টি নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। এক ঘণ্টা মধ্যে আমরা ইনসুলিন নিয়ন্ত্রণ করে ফেলি।  

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement