Beta

বাংলাদেশে বন্ধ্যত্বের চিকিৎসার অবস্থা কেমন?

২৩ আগস্ট ২০১৮, ২০:১৫ | আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৮, ০৮:১৩

ফিচার ডেস্ক

বন্ধ্যত্ব রোগ নয়, একটি সমস্যা। বাংলাদেশে বন্ধ্যত্বের সমস্যা সমাধানে এখন অনেক আধুনিক চিকিৎসা রয়েছে। বন্ধ্যত্বের চিকিৎসার বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩১৭১তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. সালেহা বেগম চৌধুরী।

ডা. সালেহা বেগম চৌধুরী বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে গাইনি বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : বাংলাদেশে বন্ধ্যত্বের চিকিৎসা এখন কোন পর্যায়ে রয়েছে?

উত্তর : এটা আমরা মেডিকেল চিকিৎসা দিই। যে সমস্যা হয় এর প্রায় ৮০ ভাগ চিকিৎসা আমরা করতে পারি, কেবল ওষুধ দিয়ে। ওভল্যুশন ইনডাকশন বলে থাকি। কিছু ওষুধ রয়েছে, ওই চিকিৎসা করলে শতকরা ৮০ ভাগেরই সমস্যা চলে যাবে। আর বাকি যাদের রয়েছে, তাদের আসলে চিকিৎসাটা ধাপে ধাপে হয়। এর মধ্যে একটিকে আমরা আই ইউভি বলি। যদিও মেডিকেলে আমাদের লাভ হয় না। অথবা তার এমন কোনো কারণ রয়েছে যে সার্জারি করতে হবে, তবে ল্যাপারস্কোপির মাধ্যমেও সমস্যা দূর করা যায়।

এর পরবর্তী ধাপ হলো আমরা প্রাইমারি লেভেল কেয়ার বললাম, এখন সেকেন্ডারি লেভেল কেয়ারে যেটি একে আইইউআই বলি। সিমেনের গুণগত মান আরো বাড়িয়ে আমরা মেয়েদের জরায়ুতে দিয়ে দিই। এতে অনেকের সমস্যা সমাধান হয়ে যায়। এর পরও যাদের সন্তান হচ্ছে না, যাদের টিউব ব্লক রয়েছে, দুটো টিউব ব্লক অথবা অ্যান্ডোমেট্রিওসিসের মধ্যে যেখানে বাচ্চা তার হচ্ছেই না, অথবা পুরুষের গুরুতর সমস্যা রয়েছে। গণনা অনেক কম। আমাদের দেশে বর্তমানে সমস্ত চিকিৎসা রয়েছে। ৮০ ভাগ ক্ষেত্রে আমরা খুব সহজে এর চিকিৎসা করতে পারি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement