Beta

শরীরে এত দাগ কিসের? তোপের মুখে সালমানের নায়িকা

০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৫

অনলাইন ডেস্ক
সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণের শিকার জারিন খান। ছবি : সংগৃহীত

ওজন কমালে বা মাতৃত্বের পরে পেটে দাগ থাকা অত্যন্ত স্বাভাবিক বিষয়। এ নিয়ে হীনমন্যতায় ভোগেন অনেকেই। আবার তারকাদের এমনটা হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কটুকথা শুনতে হয়। এবার অন্তর্জালবাসীর তোপের মুখে পড়েছেন অভিনেত্রী জারিন খান। তবে তাঁর পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন আরেক তারকা আনুশকা শর্মা।

হিন্দুস্তান টাইমস প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সম্প্রতি রাজস্থানে বেড়াতে গিয়েছিলেন ‘বীর’ ছবিতে সালমান খানের নায়িকা জারিন খান। সেখানে হ্রদের ধারে দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন। পরেছিলেন সাদা ক্রপ টপ। ছবিতে তাঁর পেটের একটি অংশ দৃশ্যমান। ছবিটি ইনস্টাগ্রামে পোস্টের পর নেটিজেনরা তাঁকে আক্রমণ শুরু করেন। কেউ কেউ বলেন, ‘শরীরে এত দাগ কিসের?’

তবে  ট্রলিংয়ের জবাব দিতেও ছাড়েননি জারিন খান। তাঁর সাফ জবাব, ওজন কমানোর পর শরীরে স্ট্রেচ মার্কস অত্যন্ত সাধারণ একটা বিষয়। স্ক্রিনশটের স্ট্যাটাস দিয়ে তাঁকে নিয়ে করা ট্রোলিংয়ের জবাব দেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি যাঁরা তাঁকে সমর্থন করেছেন, তাঁদের প্রশংসা করতেও ভোলেননি তিনি।

জারিন বলেন, ‘প্রায় ৫০ কেজিরও বেশি ওজন কমালে স্ট্রেচ মার্কস থাকাটা খুবই স্বাভাবিক। চিরকালই স্বাভাবিক শরীরিক সৌন্দর্যে বিশ্বাস করে এসেছি। তাই স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না। ফটোশপ বা সার্জারি না করলে স্বাভাবিক মানুষের শরীর এমনই হয়।’

জারিন খানের পাশে দাঁড়িয়েছেন আনুশকা শর্মা। তিনি লিখেছেন, ‘জারিন তুমি যে রকম, সে রকমই তুমি সুন্দর, সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী!’

জারিন অবশ্য ইতিবাচক ও নেতিবাচক মন্তব্যের স্ক্রিনশটও শেয়ার করেন ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে।

জারিন খানকে আগামীতে হরিশ বিয়াসের ‘হাম ভি একেলে তুম ভি একেলে’ ছবিতে দেখা যাবে। আগামী বছর পর্দায় উঠবে ছবিটি। তাঁকে সর্বশেষ ‘আকসার টু’ ও ‘১৯২১’ ছবিতে দেখা যায়। ‘হেট স্টোরি থ্রি’, ‘হাউসফুল টু’ ও ‘বীর’ ছবিতেও অভিনয় করেন এ অভিনেত্রী। সালমান খানের ‘যুবরাজ’ দিয়ে অভিষেক হয় তাঁর।

আনুশকা শর্মাকে সর্বশেষ আনন্দ এল রাই পরিচালিত ‘জিরো’ ছবিতে দেখা যায়। এতে আরো অভিনয় করেন সুপারস্টার শাহরুখ খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। ছবিটি বক্স অফিসে সুপারফ্লপ হয়েছিল। এরপর আর কোনো চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হননি আনুশকা।

Advertisement